1. dainikasharalo@gmail.com : admin2021 :
  2. sagor201523@gmail.com : AKASH :
  3. anisurrohman2012@gmail.com : anisur : anisur rohman
  4. qtvbanglanews2018@gmail.com : sagor201523@gmail.com :
শার্শায় প্রভাব খাটিয়ে সরকারী গাছ বিক্রি করার অভিযোগ - Dainikasharalo.com
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০২:১১ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর উদ্দেগে ব্লাড গ্রুপ ও মেডিকেল ক্যাম্পেইন আয়োজন ​আমাদের বেতন ভাতা পোশাক সব কিছু জনগনের ট্যাক্সের টাকায় — এসপি প্রলয় কুমার জোয়ার্দার ছাত্রীদের তোপের মুখে জবির হল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত বেনাপোল চেকপোষ্ট কাস্টমস থেকে ১,৭০,০০০মার্কিন ডলার সহ দুইজন আটক বেনাপোল চেকপোষ্ট থেকে বিপুল পরিমান মার্কিন ডলার সহ দুই জন আটক দূর্গাপূজায় সম্প্রীতি নষ্ট করলে কঠোর ব্যবস্থা শার্শায় প্রেমিকের সাথে কিশোরী আটকের পর গণধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার ২ কয়রায় গবাদিপশুর অবাধ বিচরণে ঘটছে দুর্ঘটনা, জনমনে অশান্তি  সাফে ইতিহাস গড়ে বীরবেশে দেশে চ্যাম্পিয়ন মেয়েরা শিশুদের উন্নয়নে কাজ করছে নড়াইল চাইল্ড ফোরাম




শার্শায় প্রভাব খাটিয়ে সরকারী গাছ বিক্রি করার অভিযোগ

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ১২৫ বার পঠিত:
শার্শায় প্রভাব খাটিয়ে সরকারী গাছ বিক্রি করার অভিযোগ

তাজিম উদ্দিন শার্শা উপজেলা প্রতিনিধিঃ
শার্শার বাগআঁচড়ার রাঢ়ীপকুর গ্রামে প্রভাব খাটিয়ে সরকারী গাছ কেটে বিক্রি করেছে আব্দুল মুজিদ নামে এক ব্যবাসয়ি। বৃহৎ আকারের শিশু গাছটি ৬০ হাজার টাকায় বিক্রি করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার সকাল ১০ টায় গাছটির শাখা প্রশাখার ডাল পালা কেটে মুল গাছটি কাটার সময় বাধা পড়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপে।

উপজেলার রাঢ়ীপকুর কমিউনিটি ক্লিনীকের সামনে সরকারী রাস্তার গাছ কাটা সম্পর্কে ক্লিনীকের ডাক্তার কামাল হোসেন বলেন, আব্দুল মজিদ এলাকায় একজন প্রভাব শালী লোক। আমি এ সম্পর্কে বলতে পারব না। তবে তাদের জমির সামনে সরকারী সীমানায় বৃহৎ এ শিশু গাছটি ছিল। তিনি আরো বলেন যেহেতু গাছটি ক্লিনিকের সামনে সেহেতু আমি আমার কর্মকর্তা শার্শা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাক্তার ইউসুফ আলীকে বিষয়টি জানিয়েছি।

স্থানীয় আব্দুর রাজ্জাক এবং কমিউনিটি ক্লিনীকের সভাপতি জোনাব আলী বলেন, সরকারী কমিউনিটি ক্লিনীকের জমিটি মুজিদ এর বাবা ডাক্তার রমজান আলী দান করেছিলেন। সেই সুবাদে তারা এই ক্লিনিকের ভালো মন্দ দেখা শুনাও করে থাকে। তবে গাছটি তাদের জমিতে নয়। এটা সম্পুর্ন সরকারী জমিতে। তারা এক সময় গাছটি রোপন করেছিল বলে তারা জানান।

এ বিষয় অভিযুক্ত আব্দুল মজিদ বলেন আমার ভাইয়ের ক্যান্সার ধরা পড়েছে। তাকে চিকিৎসার জন্য টাকার প্রয়োজন তাই গাছটি বিক্রি করেছি। কত টাকায় বিক্রি করেছেন জানতে চাইলে তিনি বলেন ১২ হাজার টাকায় বিক্রি করেছি। আর এই কমিউনিটি ক্লিনীকের জমিও আমর পিতার দান করা। আমরা দাতা সদস্য। গাছটিও আমরা রোপন করি যার জন্য এটা বিক্রি করেছি। স্থানীয় জনৈক এক ব্যক্তি বলেন স্থানীয় একজন চেয়ারম্যান এর নির্দেশনা মতে গাছটি বিক্রি করে মজিদ। তা না হলে সরকারী সম্পদ বিক্রি করার মত সাহস তার হতো না।

এবিষয় শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলীফ রেজা বলেন,গাছটি কাটার সংবাদ পেয়ে বাধা দেওয়া হযেছে। যারা গাছ কেটেছে তারা ওটা নিতে পারবে না। এ বিষয় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com