1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
শার্শায় ধৃষ্টতা দেখিয়ে ১৫ আগষ্ট জাতিয় শোক দিবসের বঙ্গবন্ধু ও প্রধান মন্ত্রীর ছবি সংবলিত বিল বোর্ড ছিড়ে ফেলেছে দুবৃত্তরা - Dainikasharalo.com
শনিবার, ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বেনাপোলে বিজিবি-বিএসএফ সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠক বেনাপোলে পৃথক অভিযানে মদ-ফেনসিডিল সহ গ্রেফতার ৩ ভারতে জেল খেটে দেশে ফিরল তিন যুবক ও দুই যুবতী বেনাপোল সীমান্তে ৩ কেজি ৩৫০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার শার্শায় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে এক নারীর মৃত্যু শার্শায় ফসলের মাটি গিলে খাচ্ছে ভাটা : প্রভাবশালী সহ জড়িয়ে রয়েছে ইউপি সদস্যরা বেনাপোল পুটখালি সীমান্ত থেকে প্রায় দুই কেজি স্বর্ণসহ আটক ২ হারানো ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিয়ে প্রশংশিত বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ ডিমলায় সরকারী রাস্তার সাইড কর্তন দেখার কেউ নেই শার্শায় সড়ক দুর্ঘটনায় সিএনজি যাত্রী এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে




শার্শায় ধৃষ্টতা দেখিয়ে ১৫ আগষ্ট জাতিয় শোক দিবসের বঙ্গবন্ধু ও প্রধান মন্ত্রীর ছবি সংবলিত বিল বোর্ড ছিড়ে ফেলেছে দুবৃত্তরা

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ১২ আগস্ট, ২০২১
  • ৪২৪ বার পঠিত:

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
হীন রাজনীতির স্বার্থ চরিতার্থ করার জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তার তনয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফেষ্টুন এবং বিল বোর্ড ছিড়ে ফেলেছে দুবৃত্তরা। শার্শার নিজামপুর ইউনিয়নের গোড়পাড়া বাজারে দুবৃত্তরা এ ঘটনা ঘটিয়েছে। ১৫ আগষ্ট জাতিয় শোক দিবস উপলক্ষে শার্শা উপজেলা আওয়ামী যুবলীগ এর যুগ্ম আহবায়ক সেলিম রেজা বিপুল ও সাবেক নিজামপুর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা আশরাফুল আলম বাটুল পৃথক বিল বোর্ড ফেস্টুন দেয় গোড়পাড়া বাজারে। এই বিলবোর্ডে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা, সজিব ওয়াজেদ জয় এর সাথে যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ও বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন এর ছবি ছিল। আওয়ামীলীগ এর একটি পক্ষ ইর্ষাম্বিত হয়ে বুধবার রাত ১০ টার সময় বাজারের নাইট গার্ডদের সামনে ধৃষ্টতা দেখিয়ে ছিড়ে ফেলে জাতির জনকের এই বিলবোর্ড। ভয়ে ওই নাইট গার্ডরা মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছে না।

নিজামপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি সুমন আহমেদ বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুর ছবির বিলবোর্ড ছিড়ে ফেলেছে তারা পেশী শক্তি ও দুর্বৃত্তায়নের রাজনীতি করে তারা এই ছবি ছিড়ে ফেলেছে। আমি এর সুষ্ঠৃু তদন্ত সাপেক্ষ বিচার দাবি করছি।

বাজারের নাাইট গার্ড আব্দুল গফুর বলেন রাত ১০ টার সময় আমি বাজারে ছিলাম না। পরে এসে মহিবুলের কাছে জানতে পেরেছি যে এই বিল বোর্ড ছিড়ে ফেলেছে। আমি নাম বলতে পারব না। কারা বিলবোর্ড ফেস্টুন ছিড়েছে মহিবুল্লাহর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি বলতে পারব না। নাম বললে আমার চাকরি থাকবে না এমনকি আমি মারধরের ও শিকার হতে পারি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে স্থানীয় বাজারের লোকজন বলেন, শার্শায় আওয়ামীলীগের রাজনীতিতে দুটি গ্রুপ আছে। এর একটি এমপি শেখ আফিল উদ্দিন নিয়ন্ত্রন করে। অন্যটি বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটনের সমর্থিত। যে ফেস্টুন বিলবোর্ড ছিড়া হয়েছে এটা মেয়র সমর্থিত লোকের ছিল। তারা আরো বলেন গত ইউপি নির্বাচনে এই ইউনিয়ন থেকে আওয়ামীলীগের প্রর্থী সেলিম রেজা বিপুল এর নৌকা প্রতীকের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে আনারস প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করেন আবুল কালাম আজাদ। তিনি ছিলেন এমপি সমর্থিত প্রার্থী। সেই নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে প্রকৃত আওয়ামীলীগদের কোন ঠাসা করে রাখে। তার সমর্থিত লোক রাত্রে এই বিলবোর্ড ছিড়ে ফেলতে পারে।

শার্শা উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক সেলিম রেজা বিপুল বলেন, ১৫ আগষ্ট জাতিয় শোক দিবসের বিল বোর্ড তাও জাতির জনকের ছবি সংবলিত; তা ছিড়ে ফিলে ঘৃনতম কাজ করেছে। এরা আর যাই হোকে অন্তত বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কর্মী হতে পারে না। আমি এর কঠিন নিন্দা জানাই এবং প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

নিজামপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ এর কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন বাজারে আমারও পোষ্টার বিলবোর্ড রয়েছে। তবে আমার ইউনিয়ন পরিষদ এর সামনে হাসপাতাল মোড়ে সেলিম রেজা বিপুল এর বিলবোর্ড কে বা কারা ছিড়েছে তা আমি বলতে পারব না। এই বিল বোর্ড ছিড়া অত্যান্ত জঘন্যতম কাজ। আমি বিপুলকে ফোন করে আবারও বিলবোর্ড পোষ্টার টানাতে বলেছি। যারা ছিড়ুক ধরতে পারলে তাদের বিরুদ্ধে আমি ব্যবস্থা গ্রহন করব। এ বিষয়টি আমি গোড়পাড়া আইসি জহির উদ্দিনকেও বলেছি।

গোড়পাড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জহির উদ্দিন বলেন বিষয়টি শুনেছি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শার্শা থানার ওসি বদরুল আলম বলেন আমি ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠাবো এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!