1. dainikasharalo@gmail.com : admin2021 :
  2. sagor201523@gmail.com : AKASH :
  3. anisurrohman2012@gmail.com : anisur : anisur rohman
  4. qtvbanglanews2018@gmail.com : sagor201523@gmail.com :
লকডাউনে কর্মহীন বাবা।। সন্তানের দুধের জন্য লোকালয়ে বাবার কান্না - Dainikasharalo.com
সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর উদ্দেগে ব্লাড গ্রুপ ও মেডিকেল ক্যাম্পেইন আয়োজন ​আমাদের বেতন ভাতা পোশাক সব কিছু জনগনের ট্যাক্সের টাকায় — এসপি প্রলয় কুমার জোয়ার্দার ছাত্রীদের তোপের মুখে জবির হল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত বেনাপোল চেকপোষ্ট কাস্টমস থেকে ১,৭০,০০০মার্কিন ডলার সহ দুইজন আটক বেনাপোল চেকপোষ্ট থেকে বিপুল পরিমান মার্কিন ডলার সহ দুই জন আটক দূর্গাপূজায় সম্প্রীতি নষ্ট করলে কঠোর ব্যবস্থা শার্শায় প্রেমিকের সাথে কিশোরী আটকের পর গণধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার ২ কয়রায় গবাদিপশুর অবাধ বিচরণে ঘটছে দুর্ঘটনা, জনমনে অশান্তি  সাফে ইতিহাস গড়ে বীরবেশে দেশে চ্যাম্পিয়ন মেয়েরা শিশুদের উন্নয়নে কাজ করছে নড়াইল চাইল্ড ফোরাম




লকডাউনে কর্মহীন বাবা।। সন্তানের দুধের জন্য লোকালয়ে বাবার কান্না

  • প্রকাশিত : বুধবার, ৭ জুলাই, ২০২১
  • ১৬৬ বার পঠিত:
লকডাউনে কর্মহীন বাবা।। সন্তানের দুধের জন্য লোকালয়ে বাবার কান্না

বেনাপোল প্রতিনিধি :
কঠোর লকডাউনে যখন সবাই কঠোরতা মানতে ব্যস্ত। অন্যদিকে কর্মহীন হয়ে পড়ায় ২২ দিনের জন্ম নেওয়া সন্তানের দুধের জন্য লোকালয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন শাহআলম নামে একজন সিএনজি চালক। ঘটনাটি ঘটে যশোরের শার্শা উপজেলার নিজামপুর বাজারে।
বুধবার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার নিজামপুর বাজারে শাহআলম লোকালয়ে কান্না করতে করতে বলেন, আমি একজন সিএনজি চালক। আমার পরিবারের আমিই আয়ের একমাত্র ব্যক্তি। আমার ৪ সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে ৬ সদস্যের সংসার। দীর্ঘদিন আয়ের পথ (রাস্তা) বন্ধ থাকলেও থেমে নেই সংসারের খরচ। সরকারের ডাকা লকডাউনে গত ২৩ জুন থেকে সড়কে গাড়ি চালানো নিষেধ হয়। এরপর থেকে আর গাড়ি চালাতে পারিনি।
ফলে ২৩ জুন থেকে আমার আয়ের পথ বন্ধ হয়ে যায়। এখন আমি সংসারের ব্যয় (খরচ) চালাতে ব্যর্থ হয়ে পড়েছি। কয়েকদিন এর ওর কাছ থেকে ধার করে বাজার করলেও এখন আর তাও পাচ্ছি না।
তিনি আরো জানায়, ঘরে আমার ২২ দিন বয়সের একটা সন্তান রয়েছে যার ২ দিন পর পর ২৫০ টাকা দিয়ে দুধ কিনে খাওয়াতে হয়। কিন্তু বর্তমান আমার কর্ম না থাকায় আমি ব্যর্থ। অনেকের কাছে টাকা ধার চেয়েছি কেউ আমাকে সহযোগিতা করেনি। মেম্বার ও চেয়ারম্যানদের পক্ষ থেকে আমাকে আজও কোনো সহযোগিতা করা হয়নি। চাইলে দিবে বলে আশ্বাস দেওয়া হয়েছে অনেকবার কিন্তু ফল পায়নি। ব্যক্তিটির মোবাইল নাম্বার-০১৯৭০৮৭০৮৭১।
অন্যদিকে স্থানীয় ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম জানান, সকালে ঘটনাটি শোনার পর তাকে ডেকে বাচ্চার দুধ কেনার জন্য আমি তাকে কিছু অর্থ দিয়েছি। পরবর্তীতে তাকে আরো সহযোগীতা করা হবে।
এই বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মীর আলিফ রেজাকে জানালে তিনি ওই ব্যক্তির মোবাইল নাম্বার মেসেজ করে দিতে বলেন। তিনি বলেন, আমি তার সাথে যোগাযোগ করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com