1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
ভারতে জেল খেটে বেনাপোল দিয়ে দেশে ফিরল ১২ যুবতী - Dainikasharalo.com
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:০৬ অপরাহ্ন




ভারতে জেল খেটে বেনাপোল দিয়ে দেশে ফিরল ১২ যুবতী

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৫১ বার পঠিত:
ভারতে জেল খেটে বেনাপোল দিয়ে দেশে ফিরল ১২ যুবতী

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
ভারতে ৬ মাস থেকে ৩ বছর পর্যন্ত জেল খেটে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে বিশেষ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যেমে দেশে ফিরেছে ১২ যুবতী। বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৫ টার সময় ভ্রাতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেন।

ফেরত আসা যুবতীরা হলোঃ নরসিংদী জেলার সুমি খাতুন (২৫) খুলনার জেলার আছমা খাতুন (২৫)ও নার্গিস খাতুন (২৪) ঝিনাইদাহ জেলার নাজমা বেগম (২৩) নাটোর জেলার মুক্তি খুাতুন (২৪) যশোর জেলার মাহফুজা খুাতুন (২৩) ও শরিফা খাতুন (২৫) কুমিল্লা জেলার সেলিনা খাতুন (২৬) বরিশাল জেলার শায়লা পারভিন (২৪) ঢাকা জেলার মিতু বেগম (২৫) ও শিরিনা খাতুন (২৪) এবং সাতক্ষীরা জেলার সুইটি খাতুন (২৪)।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি মোহাম্মাদ রাজু বলেন, ভারতে বিভিন্ন মেয়াদে জেল খেটে আজ বেলা সাড়ে ৫ টার সময় ১২ জন যুবতী দেশে এসেছে। এদের ইমিগ্রেশন এর আনুষ্ঠানিকতা শেষে বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হবে। সেখান থেকে বেসরকারী দুটি এনজিও সংস্থা তাদের নিয়ে যাবে বলে এসেছে।

ফেরত আসা খুলনার আছমা খাতুন বলেন, ভালো কাজের আশায় দালালদের মাধ্যেমে গত ৩ বছর আগে ভারতের হায়দ্রাবাদে যাই। সেখানে বাসা বাড়ির কাজ করার সময় সেদেশের পুলিশ আটক করে জেল খানায় পাঠায়। পরে জেল থেকে প্রজ্জলা নামে ভারতীয় একটি বেসরকারী এনজিও সংস্থা ছাড়িয়ে এনে তাদের নিজেদের শেল্টার হোমে রাখে।

জাতিয় মহিলা আইনজীবি সমিতির প্রোগ্রাম অফিসার রেখা বিশ্বাস বলেন, এরা বিভিন্ন সময়ে দালালদের খপ্পরে পড়ে ভালো কাজের আশায় পাচার হয়। এরপর সেখানে যেয়ে ঝুকি পূর্ন কাজ করার সময় সেদেশের পুলিশের কাছে আটক হয়। এরপর দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় চিঠি চালাচালির এক পর্যায়ে বেনাপোল চেকপোষ্ট দিয়ে দেশে ফেরত আসে ।

জাষ্টিস এন্ড কেয়ার এর সমন্বয়কারী রোকেয়া পারভিন বলেন ফেরত আসাদের ইমিগ্রেশন ও থানার আনুষ্ঠানিকতা শেষে আমরা যশোর নিয়ে নিজেদের শেল্টার হোমে রাখব। এরপর পরিবারের সদস্যদের সাথে যোগাযোগ করে তাদের কাছে হস্তান্তর করা হবে। তবে কেউ যদি আইনি সহয়তা চায় তাহলে তাদের সহায়তা দেওয়া হবে।




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!