1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
বেনাপোল বন্দরে রফতানি পণ্য সয়াবিন ভুশি বোঝাই ট্রাক দাঁড়িয়ে থাকায় যানজটের সৃষ্টি - Dainikasharalo.com
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:১৯ অপরাহ্ন




বেনাপোল বন্দরে রফতানি পণ্য সয়াবিন ভুশি বোঝাই ট্রাক দাঁড়িয়ে থাকায় যানজটের সৃষ্টি

  • প্রকাশিত : বৃহস্পতিবার, ৯ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৫১ বার পঠিত:
বেনাপোল বন্দরে রফতানি পণ্য সয়াবিন বোঝাই ট্রাক দাঁড়িয়ে যানজটের সৃষ্টি

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
বেনাপোল বন্দরে শত শত রফতানি পণ্য বাহি সয়াবিন ভুশি ট্রাক আটকা পড়েছে। এতে বেনাপোল চেকপোষ্ট থেকে বাজার পর্যন্ত প্রায় ২ কিলোমিটার জুড়ে সৃষ্টি হয়েছে যানজটের। যানজট এতটা প্রবল আকার ধারন করেছে যে ভ্যান, রিক্সা, অটো, সাইকেল মোটর সাইকেল চলাচল করতে পারছে না। দেশে প্রানী খাদ্য সংকট থাকায় প্রানী সম্পদ অধিদপ্তর সয়াবিন ভুশি রফতানি নিশেধাজ্ঞা জারী করায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

প্রানী সম্পদ অধিদপ্তর এর পরিচালক আনোয়ার হোসেন সাক্ষরিত স্মারক নং ৩৩,০১,০০০০,১১০,০৪,০০১, ১/০৯/২১ তারিখে পোল্টি ও ডেইরি ফিডে সয়াবিন একটি অন্যতম উপাদান উল্লেখ করা হয়েছে। এগুলো মালায়েশিয়া থেকে আমদানি করা হয়। আবার তা যদি রফতানি করা হয় দেশের পোল্টি , ডেইলি ও মৎস সম্পদের খাদ্য সংকট হতে পারে। এবং অত্যাধিক মুল্য বৃদ্ধি পেতে পারে বলে এগুলো রফতানি বন্ধ করা হয়। তবে যে সব রফতানি কারকের আগে থেকে প্রানি সম্পদ অধিদপ্তর থেকে সার্টিফিকেট নেওয়া ছিল সেই সব সয়াবিন ভুশি শুধু মাত্র ভারত যাবে। বাকি পণ্য বাহি ট্রাক ফেরত যাবে । দেশের বর্তমান পোল্ট্রি ও ডেইরি ফার্মে চাহিদা রয়েছে প্রায় ১৫ লক্ষ টন। যার সিংহ ভাগই বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয। তাই সয়াবিন ভুশি রফতানি করা হলে ডেইরি ও পোল্টি খাদ্য উৎপাদনে বাধাগ্রস্থ হতে পারে এবং অত্যাধিক হারে মুল্য বৃদ্ধি পেতে পারে তার জন্য আপাতত রফতানি বন্ধ থাকবে বলে ওই চিঠিতে উল্লেখ করা হয়েছে।

বেনাপোল উদ্ভিদ ও সংগোনিরোধ কেন্দ্রের অফিসার হেমন্ত সরকার বলেন, যে সব ট্রাক বেনাপোল বন্দর দিয়ে ভারত যাওয়ার উদ্দেশ্য এসেছে সেসব ট্রাক আবার ফেরত যাবে। অন্যান্য বন্দর দিয়েও এসব সয়াবিন ভুশি রফতানি হতো। বর্তমানে প্রানি সম্পদ অধিদপ্তরের নিশেধাজ্ঞার কারনে সব বন্দর দিয়ে রফতানি বন্ধ রয়েছে। অনেকে মনে করেছিল দেশের বৃহত্তর স্থল বন্দর বেনাপোল দিয়ে পাঠানো যাবে। কিন্তু উপরোরিল্লিখিত স্মারক নাম্বার অনুযায়ী চিঠি ইস্যু হওয়ায় কোন রকম এসব সয়াবিন ভুশি ভারতে পাঠানো সম্ভব না।

বেনাপোল সিএন্ড এফ এজেন্ড এন ইসলাম এর বর্ডার প্রতিনিধি রিয়াজুল ইসলাম বলেন, সয়াবিন ভুশি বন্ধ হওয়া উচিৎ। কারন এই সয়াবিন দেশে উৎপাদন হয় না। এগুলো মালায়েশিয়া সহ বেশ কয়েকটি দেশ থেকে আমদানি করতে হয়। বর্তমানে দেশে পোল্ট্রি ও ডেইরি ফার্মে খদ্য সংকট। এসব ভুশি ভারত রফতানি করা হলে দেশে মুল্য বৃদ্ধি পাবে। এবং পোল্টি ও ডেইরি ফার্ম ক্ষতিগ্রস্থ হবে। এই কারনে বেনাপোলে গত এক সপ্তাহ যাবৎ যানজট সৃষ্টি হয়েছে।

বেনাপোল এলাকায় বসবাস রত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলতাফ চৌধুরী বলেন, কোন সভ্য সমাজে দিনের পর দিন এ ভাবে সপ্তাহ ব্যপি যানজট লেগে াকতে পারে এ আমার বোধগম্য নয়। গত এক সপ্তাহ যাবৎ মানুষ চলাচলের অনুপযোগি বেনাপোল বাজার থেকে চেকপোষ্ট পর্যন্ত সড়কটি। এ পথ দিয়ে দেশী বিদেশী পর্যটক চলাচল করে। প্রতিদিন ভারত বাংলাদেশ গমানামন করে করে প্রায় ১০ হাজার যাত্রী। তারা এসে তাদের ল্যাগেজ নিয়ে পড়ছে বিপাকে।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!