1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
বেনাপোল বন্দরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড; দাহ্য পদার্থ ব্লিচিং পাউডার সহ ৬ টি ভারতীয় ট্রাক ভস্মিভুত - Dainikasharalo.com
বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বেনাপোলে বিজিবি-বিএসএফ সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠক বেনাপোলে পৃথক অভিযানে মদ-ফেনসিডিল সহ গ্রেফতার ৩ ভারতে জেল খেটে দেশে ফিরল তিন যুবক ও দুই যুবতী বেনাপোল সীমান্তে ৩ কেজি ৩৫০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার শার্শায় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে এক নারীর মৃত্যু শার্শায় ফসলের মাটি গিলে খাচ্ছে ভাটা : প্রভাবশালী সহ জড়িয়ে রয়েছে ইউপি সদস্যরা বেনাপোল পুটখালি সীমান্ত থেকে প্রায় দুই কেজি স্বর্ণসহ আটক ২ হারানো ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিয়ে প্রশংশিত বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ ডিমলায় সরকারী রাস্তার সাইড কর্তন দেখার কেউ নেই শার্শায় সড়ক দুর্ঘটনায় সিএনজি যাত্রী এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে




বেনাপোল বন্দরে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড; দাহ্য পদার্থ ব্লিচিং পাউডার সহ ৬ টি ভারতীয় ট্রাক ভস্মিভুত

  • প্রকাশিত : শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৯৬ বার পঠিত:

মোঃ আনিছুর রহমান
বেনাপোল স্থল বন্দরের ভারতীয় ট্রাক টার্মিনালে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড সংঘটিত হয়েছে। এতে ৬ টি ভারতীয় ট্রাক আমাদানিকৃত পণ্য সহ ভস্মিভুত ও এক প্যাকেজ আমদানিকৃত ম্যাশিনারী কার্টনে আগুন লেগে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে। ওই ট্রাকে দাহ্য পদার্থ ব্লিচিং পাউডার ছিল। প্রায় দুই ঘন্টা ফায়ার সার্ভিসের তিনটি ইউনিট কাজ করে আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। অনিয়ম অব্যবস্থাপনার কারনে এরকম অগ্নিকান্ড সংটিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন একাধিক বন্দর ব্যবসায়িরা। শুক্রবার ভোর ৫.০৪ টার সময় বেনাপোল স্থল বন্দরের ভারতীয় ট্রাক টার্মিনালের মধ্যে এ অগ্নিকান্ড ঘটে। ঘটনাস্থলে বেনাপোল স্থল বন্দরের কর্মকর্তাগন ও পোর্ট থানা ওসি কামাল হোসেন ভুইয়া পরিদর্শন করেন।

বেনাপোল সিএন্ড এফ এজেন্ড মুক্তা ট্রেুিডং এর সত্বাধিকারী আব্দুল মুন্নাফ বলেন, খামখেয়ালী পনা ও অব্যবস্থার কারনে এরকম অগ্নিকান্ড সংঘটিত হয়েছে। যেখানে অগ্নিকান্ড ঘটেছে সেই স্থানটি একটি টার্মিনাল। এখানে ভারতীয় গাড়ি রাখা হয় বলে নাম হয়েছে ভারতীয় ট্রাক টার্মিনাল। টার্মিনালের মধ্যে রয়েছে আমদানিকৃত অন্যান্য পণ্য। যা রাখার কথা নয়। আবার এসব দাহ্যপণ্য ফাঁকা জায়গায় রাখার কথা থাকলেও তারা এই টার্মিনালের মধ্যে রেখেছে। তিনি আরো বলেন, বেনাপোল স্থল বন্দরের একটি নিজস্ব ফায়ার সার্ভিস টিম রয়েছে। তারা অগ্নি নির্বাপকের কোন কাজ করে নাই। খোজ নিয়ে জানা গেছে তাদের গাড়িতে পানি নেই। এরা আবার বছরের পর বছর বন্দর থেকে বেতন ভাতা ও গাড়ির তেল খরছ নিচ্ছে প্রতনিয়ত।

তৌহিদুজ্জামান নামে একজন সিএন্ডএফ কর্মচারী বলেন, যতবার এই বন্দরে অগ্নিকান্ড সংঘটিত হয়েছে ততবারই ছুটির দিনে। আজ ও ছুটির দিন। এছাড়া এসব দাহ্যপদার্থ জাতিয় পণ্য কেনই বা এই টার্মিনালে রাখা হয়েছে তাও ক্ষতিয়ে দেখার বিষয়।

স্থানীয় একাধিক সিএন্ডএফ কর্মচারীরা বলেন, ভারতীয় যে সব ট্রাকে এজাতিয় পণ্য আসে তা একদিনের মধ্যে বন্দর থেকে খালাস করে নিয়ে যাওয়ার কথা। তারপরও ওই ট্রাকগুলো প্রায় ১৫ দিন এই টার্মিনালের মধ্যে অবস্থান করছে। ট্রাকের চালক ও হেলপাররা ট্রাকের মধ্যে বসে ধুমপান করে থাকে এবং ট্রাকের নীচে রান্নার কাজ করে। সেখানে থেকে আগুন লাগতে পারে বলে তারা মন্তব্য করেন।

ফায়ার কর্মী রইজ উদ্দিন বলেন কি ভাবে অগ্নিকান্ড ঘটেছে তা এখন বলা সম্ভব না। এটা তদন্ত সাপেক্ষে বলা যেতে পারে।

বেনাপোল বন্দরের ট্রাফিক পরিদর্শক জাহিদুল ইসলাম বলেন, এগুলো দাহ্য পদার্থ । এতে পানি লাগলে আগুন ধরে যায় । তবে বৃষ্টি হয়নি । অতিরিক্ত তাপমাত্রার কারনে এরকম অগ্নিকান্ড সংঘটিত হতেও পারে।
বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি কামাল হোসেন ভুইয়া বলেন স্থল বন্দরে অগ্নিকান্ড সংঘটিত হওয়ার পর ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি পুলিশ ও অগ্নিনির্বাপক এর কাজ করছে।

বেনাপোল স্থল বন্দও এর উপ-পরিচালক মামুন কবির তরফদার বলেন, কি ভাবে এই দাহ্য পদার্থে আগুন লেগেছে তা তদন্ত করা হবে। তবে এগুলো যেহেতু দাহ্য পদার্থ অতিরিক্ত তাপমাত্রার কারনেও আগুন লাগতে পারে। এর আগেও এরকম ঘটনা ঘটেছে বন্দর এলাকায়।

 

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!