1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
বেনাপোল পৌর সভার বাজেট ৫ কোটি থেকে ১ শত ১৫ কোটিতে উন্নতি হয়েছে- মেয়র লিটন - Dainikasharalo.com
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১১:১৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কয়রা উপজেলায় আশ্রয়ন প্রকল্পের রাস্তার বেহাল দশা বেনাপোল বন্ধন ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন বেনাপোল সীমান্ত থেকে পিস্তল,গুলি,ম্যাগজিন সহ আটক ০১ বেনাপোলে ০৩ মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার শার্শার জামতলা বাজারে মায়া ডিজিটাল ষ্টোডিওতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড বেনাপোলে পুলিশের অভিযানে ভারতীয় গাঁজা সহ আটক ৩ প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বেনাপোলে সাংবাদিকদের সাথে বিজিবির মত বিনিময় সভা যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর উদ্দেগে ব্লাড গ্রুপ ও মেডিকেল ক্যাম্পেইন আয়োজন ​আমাদের বেতন ভাতা পোশাক সব কিছু জনগনের ট্যাক্সের টাকায় — এসপি প্রলয় কুমার জোয়ার্দার




বেনাপোল পৌর সভার বাজেট ৫ কোটি থেকে ১ শত ১৫ কোটিতে উন্নতি হয়েছে—- মেয়র লিটন

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৭ মার্চ, ২০২২
  • ২৯ বার পঠিত:

বেনাপোল প্রতিনধিঃ
যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন বলেছেন, বেনাপোল পৌর সভার সকল নাগরিক পৌরসভার সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা পাবে। এই পৌরসভায় আধুনিক পৌর পার্ক বিনোদন কেন্দ্র স্থাপন করার জন্য পৌরসভা পরিকল্পনা গ্রহন করেছেন। বেনাপোল পৌরসভার প্রথম নির্বাচিত মেয়র হিসাবে আমি ৫ কোটি টাকার বাজেট পেয়েছিলাম। এরপর সেই পৌরসভার বাজেট আমি ১ শত ১৫ কোটিতে উন্নতি করি। এছাড়া পৌরসভায় রয়েছে প্রায় ২ হাজার শতকের উপরে জমি। বর্তমানে পৌর সভায় একটি আধুনিক মানের পার্ক নির্মানের জন্য পরিকল্পনা রয়েছে। ইতিমধ্যে এই পার্ক নির্মানের জন্য সরকারের উচ্চ পর্যায়ে কাজ চলছে। বেনাপোলের হাকর নদী সংস্কার করে নদীর নব্যতা ফিরিয়ে আনা ও শোভা বর্ধনের জন্য ও কাজ চলছে। বেনাপোল পৌরসভার সভাকে ত্রৈমাসিক টিএল সিসি বৈঠকে সভাপতি হিসাবে মেয়র আশরাফুল আলম লিটন এসব কথা বলেন।

রোববার বেলা ১১ টার সময় বেনাপোল পৌরসভার সভাকে নগর উন্নয়ন ( এিএলসিসি) সদস্যদের ত্রৈমাসিক বৈঠকে সভাপতি মেয়র আশরাফুল আলম লিটন বলেন, আজ বেনাপোলের অনেক স্বচ্ছল মানুষ এই শহর ছেড়ে অন্য শহরে যেয়ে বসবাস করছে। আর ওই শহরে যেয়ে সে অর্থ খরছ করছে। যে অর্থ এই শহরে খরছ করলে এখানকার মানুষের উন্নয়ন হতো। এর একটি মাত্র কারন হলো এখানে ভালো শিা প্রতিষ্ঠান ও ভালো স্বাস্থ্য সেবার অভাবে তারা অন্য শহরে যেতে বাধ্য হয়েছে। আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে এখানে নার্সারী থেকে দ্বাদশ শ্রেনী পর্যন্ত খুব ভালো মানের শিা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলব। যাতে করে এই শহর ছেড়ে যাওয়া মানুষগুলো আবার ফিরে আসে। এখানে তৈরী হবে আধুনিক মানের স্বাস্থ্য কেন্দ্র। যেখানে বহুতল ভবনের সাথে লিফট এর ব্যবস্থা থাকবে। বেনাপোল শহরকে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান এর আওতায় আনা হবে। ১০ বছর আগে সরকার যে পরিকল্পনা নিয়েছে তার মধ্যে বেনাপোল অন্তর্ভূক্ত রয়েছে। এর ফাইল আটকা পড়ে রয়েছে। এটা দ্রুত হয়ে যাবে।

তিনি আরো বলেন,আপনারা যেমন নিজের বাড়িকে আপন করে দেখেন নিজের আঙ্গিনাকে পরিচ্ছন্ন রাখেন তেমনি বেনাপোল পৌরসভাকেও দেখতে হবে। কারন পৌরসভার কোন সম্পদ কোন কর্মকর্তারে নয়। এই সম্পদ আপনাদের । আমি যখন পৌরসভার দায়িত্ব নিয়েছিলাম তখন কাজ করা চ্যালেঞ্জিং ছিল। আমার পর যারা দায়িত্ব নিবে তারা সহজ ভাবে কাজ করতে পারবে। সে ভাবে প্লান করা হয়েছে। বর্তমানে প্রায় আড়াই থেকে তিন কোটি টাকার কাজ হাতে রয়েছে। বেনাপোল পৌরসভায় আজ কোন বাড়ি থেকে কাদা পাড়িয়ে রাস্তায় উঠা লাগে না। এই পৌরসভার সকল রাস্তাঘাট পাকাকরন হয়েছে। এই শহরের প্রবেশদ্বারে রয়েছে নান্দনিক স্থাপনা গেট। পৌরসভার আয়বর্ধনের জন্য রয়েছি অত্যাধুনিক আধুনিক মানের ট্রাক ও বাস টার্মিনাল।

এসময় তিনি বলেন, পৌরসভার সকল সম্পদ রনাবেনের দায় এই শহরের নাগরিকদের। আমি চাই সকলে সে ভাবে যত্নবান হবেন। আপনাদের স্বাস্থ্য সেবা দিতে এপ্রিল মাসে চালু হবে একটি হাসপাতাল । সেখানে ভারত থেকে আগত ভালোমানের ডাক্তার থাকবে। এটা দেখ ভাল করবে একটি বেসরকারী এনজিও।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, যশোর জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য আহসান উল্লাহ , শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক টিএল সিসি সদস্য আব্দুল মালেক, দপ্তর সম্পাদক আজিবর রহমান, পৌর প্যানেল মেয়র সাহাবুদ্দিন মন্টু, আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি রহমত আলী, আওয়ামীলীগ নেতা মোজাফফার হোসেন. বেনাপোল হাইস্কুলের শিক মোখলেছুর রহমান, পৌর কাউন্সিলার মিজানুর রহমান, আমিরুল ইসলাম, কামরুন্নাহার আন্না, জুলেখা খাতুন পৌর সচিব সাইফুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেন প্রমুখ।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com