1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
বেনাপোল দিয়ে ভারত গমন যাত্রী পারাপার বৃদ্ধি পেয়েছে - Dainikasharalo.com
বৃহস্পতিবার, ০২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
বেনাপোলে বিজিবি-বিএসএফ সেক্টর কমান্ডার পর্যায়ে বৈঠক বেনাপোলে পৃথক অভিযানে মদ-ফেনসিডিল সহ গ্রেফতার ৩ ভারতে জেল খেটে দেশে ফিরল তিন যুবক ও দুই যুবতী বেনাপোল সীমান্তে ৩ কেজি ৩৫০ গ্রাম স্বর্ণ উদ্ধার শার্শায় ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে এক নারীর মৃত্যু শার্শায় ফসলের মাটি গিলে খাচ্ছে ভাটা : প্রভাবশালী সহ জড়িয়ে রয়েছে ইউপি সদস্যরা বেনাপোল পুটখালি সীমান্ত থেকে প্রায় দুই কেজি স্বর্ণসহ আটক ২ হারানো ১ লক্ষ ৭০ হাজার টাকা উদ্ধার করে ফিরিয়ে দিয়ে প্রশংশিত বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ ডিমলায় সরকারী রাস্তার সাইড কর্তন দেখার কেউ নেই শার্শায় সড়ক দুর্ঘটনায় সিএনজি যাত্রী এক তরুণের মৃত্যু হয়েছে




বেনাপোল দিয়ে ভারত গমন যাত্রী পারাপার বৃদ্ধি পেয়েছে

  • প্রকাশিত : শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৩৫ বার পঠিত:
বেনাপোল দিয়ে ভারত গমন যাত্রী পারাপার বৃদ্ধি পেয়েছে

বেনাপোল দিয়ে ভারত গমন যাত্রী পারাপার বৃদ্ধি পেয়েছে
বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
ভারত গমন যাত্রী চলাচলের উপর শর্ত গুলি শিথিল করায় যাত্রী পারাপার বৃদ্ধি পেয়েছে বেনাপোল ইমিগ্রেশন দিয়ে। কোভিড -১৯ এর কারনে ভারত থেকে ফেরত যাত্রীদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইন শুরু হয় ২৬ এপ্রিল ২০২১ থেকে। এর আগেও কোয়ারেন্টাই চালু ছিল গত বছরের জুলাই থেকে। নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে থাকা খাওয়ার কারনে ভারত গমন যাত্রী অনেক হৃাস পেয়েছিল। আবার ভারত থেকে ফেরার সময় ভারতে নিযুক্ত বাংলাদেশী হাই কমিশন থেকে অনুমোদন নিয়ে ফেরার কারনেও যাত্রী হৃাস পায়। তবে মুমুর্ষ রোগিরা সকল শর্ত মেনে ভারত গমন করে।

গত ৮ই সেপ্টেম্বর প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাই উঠে যাওয়ার পর ভারতে যাত্রী গমন বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়া ওপার থেকে আসা পাসপোর্ট যাত্রীদেরও হাইকমিশনের অনুমোদন এর শর্ত তুলে নেয়। তবে উভয় রাষ্ট্র থেকে পাসপোর্ট যাত্রীদের করোনা নেগেটিভ সনদ এর শর্ত বহাল রয়েছে।
গত এক সপ্তাহে ভারত ও বাংলাদেশে আন্ত ও বর্হিগমনে ৬৩৭২ জন যাত্রী চলাচল করেছে। এর মধ্যে ১২ সেপ্টেম্বর ৭১৬ জন, ১৩ সেপ্টেম্বর ৬২৯ জন ১৪ সেপ্টেম্বর ৮৪৫ জন ১৫ সেপ্টেম্বর ৫২৯ জন, ১৬ সেপ্টেম্বর ১২২৪ জন ১৭ সেপ্টেম্বর ১২২৭ জন এবং ১৮ সেপ্টেম্বর ১২০২ জন ভারত ও বাংলাদেশী যাত্রী যাতায়াত করেছে।

বিশ্বব্যাপি করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়লে দেশের সীমান্ত দিয়ে পাসপোর্ট যাত্রী চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এরপর শুধু মাত্র চিকিৎসার জন্য যাত্রীরা বিশেষ অনুমোদন নিয়ে যেতে পারবে বলে উভয় দেশের সকরার অনুমোদন দেয়। কিছুদিন পর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সুরক্ষা বিভাগের অনুমোদন নিয়ে মেডিকেল ভিসা এবং বানিজ্যিক ভিসার অনুমোদন দেয়। এরপর যাত্রী চলাচল এত শর্ত নিয়ে চলাচলে বিড়ম্বনায় পড়ে। সেই থেকে যাত্রী হৃাস পায় বর্হিগমন ও আন্তগমনে। সব মিলে ২০০ শতর মধ্যে যাত্রী চলাচল ছিল। সম্প্রতি শর্ত শিথিল এর কারনে এ পথে প্রতিদিন সব মিলে সহস্রাধিক যাত্রী চলাচল করছে বলে জানা গেছে।

বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি আহসান হাবিব বলেন উভয় দেশের শর্ত শিথিল এবং করোনা ভাইরাস এর প্রাভাব রোধ পাওয়ায় গত এক সপ্তাহ যাবৎ পাসপোর্ট যাত্রী বৃদ্ধি পেয়েছে। ট্যুরিষ্ট ভিসা ছাড়লে হয়ত আগের মত দুই দেশ থেকে আসা যাওয়া যাত্রী ১০ হাজারের কাছাকাছি যাবে। এতে সরকারও অনেক রাজস্ব পাবে।
বেনাপোল কাস্টমস সুত্র জানায় ভারত বাংলাদেশ থেকে মেডিকেল বিজিনেস, এম্পলয়ার, ষ্টুডেন্ট ভিসার পাশাপাশি টিএফ ভিসার যাত্রীও চলাচল করছে। হয়ত খুব তাড়াতাড়ি উভয় রাষ্ট্র ভ্রমন ভিসা চালু করবে। তখন যাত্রী সংখ্যা বেড়ে আগের মত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!