1. dainikasharalo@gmail.com : admin2021 :
  2. sagor201523@gmail.com : AKASH :
  3. anisurrohman2012@gmail.com : anisur : anisur rohman
  4. qtvbanglanews2018@gmail.com : sagor201523@gmail.com :
বেনাপোলে ৫০ বছর ঝাল মুড়ি বিক্রি করে শামছু মিয়ার চলে সংসার - Dainikasharalo.com
রবিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০১:১৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:
​আমাদের বেতন ভাতা পোশাক সব কিছু জনগনের ট্যাক্সের টাকায় — এসপি প্রলয় কুমার জোয়ার্দার ছাত্রীদের তোপের মুখে জবির হল খোলা রাখার সিদ্ধান্ত বেনাপোল চেকপোষ্ট কাস্টমস থেকে ১,৭০,০০০মার্কিন ডলার সহ দুইজন আটক বেনাপোল চেকপোষ্ট থেকে বিপুল পরিমান মার্কিন ডলার সহ দুই জন আটক দূর্গাপূজায় সম্প্রীতি নষ্ট করলে কঠোর ব্যবস্থা শার্শায় প্রেমিকের সাথে কিশোরী আটকের পর গণধর্ষনের অভিযোগে গ্রেফতার ২ কয়রায় গবাদিপশুর অবাধ বিচরণে ঘটছে দুর্ঘটনা, জনমনে অশান্তি  সাফে ইতিহাস গড়ে বীরবেশে দেশে চ্যাম্পিয়ন মেয়েরা শিশুদের উন্নয়নে কাজ করছে নড়াইল চাইল্ড ফোরাম শার্শার গোগা সীমান্ত থেকে ১৫ পিস সোনারবার সহ পাচারকারী আটক




বেনাপোলে ৫০ বছর ঝাল মুড়ি বিক্রি করে শামছু মিয়ার চলে সংসার

  • প্রকাশিত : সোমবার, ২৪ জানুয়ারী, ২০২২
  • ১৫ বার পঠিত:

মোঃ আনিছুর রহমানঃ
চারিদিকে মানুষের হই চৈ। প্রতিদিন যশোর জেলার বেনাপোল সীমান্তে নামে মানুষের ঢল। এই জায়গাটি পর্যটন এলাকা না হলেও প্রতিদিন স্থানীয় ও দেশী বিদেশী মানুষের যাতায়াত চলে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত। কারন এটি একটি আন্তর্জাতিক চেকপোষ্ট ও দেশের বৃহৎ স্থল বন্দর। এ পথে প্রতিদিন হাজার হাজার লোক যাতায়াত করে ভারত বাংলাদেশ । আর সেখানে হাজির হয় জেলার ঝিকরগাছা থানার সত্তোর্ধ মানুষ ঝাল মুড়ি বিক্রেতা শামছুর রহমান। তিনি প্রতিদিন কাঁচা ছোলা সিদ্ধ ছোলা , ডিম ও ঝাল মুড়ি বিক্রি করে এসব মানুষের কাছে। প্রায় ৫০ বছর যাবৎ এই জনপদে শামছুর রহমান ছোলা মুড়ি বিক্রি করে স্বাবলম্বী।

 

বেনাপোল চেকপোষ্টের শুণ্য রেখার কাছাকাছি ১৮০ বছরের শিশু গাছ। সেখানে পাসপোর্ট যাত্রী সহ দেশের প্রত্যান্ত অঞ্চল থেকে আসা মানুষ ভীড় জমায়।আর সেই গাছ তলায় শামছুর রহমান এর স্বাদের মুখরোচক চানাচুর, ছোলা, মুড়ি ডিম খায় এসব মানুষ। যার যা ভালো লাগে সেটাই খায় তার এই ছোট টিনের বাক্স থেকে। কোন চেয়ার বা দোকান ছাড়া একটি ইটের পর বসে বিক্রি করে তিনি তার মুখরোচক এই খাদ্য সামগ্রী।

শামছুর রহমান এর সাথে কথা বলে জানা যায় তিনি একজন আত্নপ্রত্যয়ী মানুষ। জীবন যুদ্ধে হার না মানা একজন আত্নপ্রত্যায়ি। তার মনের মাধুরী দিয়ে চানাচুর, মুড়ি, কাঁচা মরিচ, পেয়াজ, ছোলা,রিা সহ বিভিন্ন রকম মসলা দিয়ে অত্যান্ত মুখরোচক ভাবে মুড়ি মাখিয়ে গ্রাহকদের মন আকৃষ্ট করে চলেছে। ঝালমুড়ি বিক্রি করেই আজ তিনি স্বাবলম্বী। বর্তমানে তিনি যশোর জেলার ঝিকরগাছা থানায় সুখের সংসারে আছেন। তার ৫ টি ছেলে মেয়ে । এর মধ্যে দুইটি ছেলে ও তিনটি মেয়ে। তবে তার একটি ছেলে প্রতিবন্ধী । ছেলে মেয়েদের সামান্য লেখা পড়া শিখিয়েছেন। মেয়েদের ভাল পাত্রর সাথে বিয়ে হয়েছে। শামছুর রহমান আরো বলেন ১৯৭৪ সাল থেকে এই বেনাপোলে আমি এসব মুখরোচক খাবার বিক্রি করি। সে সময় তাকে সকলে ভাই বললেও এখন সকলে তাকে বয়সের ভারে চাচা বলে।

প্রতিদিন বেনাপোল চেকপোষ্টের শিশু গাছটির নীচে দেখা যায় মানুষটির মুখে যেন সার্বনিক আনন্দের ছাপ। সকলের সাথে সে হেসে কথা বলে। প্রতিদিন আয় কত জানতে চাইলে বলে প্রতিদিন তার আয় ৪ শত থেকে ৫ শত টাকা। তাতে তার ভাল ভাবে সংসার চলে।

বেনাপোল চেকপোষ্টের আশাদুজ্জামান আশা বলেন, শামছুর রহমান একজন রসিক মানুষ। তাকে আমি ছোট বেলা থেকে দেখছি তিনি এই চেকপোষ্ট এলাকায় ঘুরে ঘুরে ছোলামুড়ি বিক্রি করে। মাঝে মাঝে তিনি কান্তি দুর করার জন্য গান গায়।
চেকপোষ্ট প্রাইভেড কার এর চালক মনিরুজ্জামান বলেন, শামছু চাচাকে আমরা ছোট বেলা থেকে দেখছি এসব ঝাল চানাচুর নিয়ে ছুটাছুটি করতে। আমরা সহ এখানে ট্রাক চালক ও ভারত বাংলাদেশের অনেক মানুষ তার ঝাল চানাচুর খেয়ে প্রশংসা করে।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com