1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
পেট্রাপোল সীমান্তে ৮ লাখ ৫০ হাজার রিয়াল উদ্ধার, আটক ভারতীয় ট্রাক চালক ও হেলপার - Dainikasharalo.com
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:২১ অপরাহ্ন




পেট্রাপোল সীমান্তে ৮ লাখ ৫০ হাজার রিয়াল উদ্ধার, আটক ভারতীয় ট্রাক চালক ও হেলপার

  • প্রকাশিত : সোমবার, ২৩ আগস্ট, ২০২১
  • ৩৭২ বার পঠিত:

বেনাপোল প্রতিনিধি :
বেনাপোল চেকপোস্টের বিপরীতে পেট্রাপোল সীমান্তে ৮ লাখ ৫০ হাজার রিয়ালসহ ভারতীয় ট্রাক চালক ও হেলপারকে আটক করে পুলিশের হাতে তুলে দিলো ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর (বিএসএফ) ১৭৯ ব্যাটেলিয়ানের সদস্যরা।
আটক ট্রাক চালক বাকি বিল্লার বাড়ি ভারতের উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বনগাঁ থানার পেট্রাপোলে ও হেলপার সাহাজী হোসেন মন্ডলের বাড়ি একই থানার জয়ন্তিপুর গ্রামে।
ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, শনিবার (২১ আগস্ট) বেনাপোল বন্দরে পণ্য খালি করে ভারতীয় ট্রাক (ডব্লিউবি-২৩-এ-৮৪০০) নিয়ে ভারতে ফেরার সময় পেট্রাপোল স্থলবন্দরে কর্তব্যরত ১৭৯ ব্যাটেলিয়ানের বিএসএফ জওয়ানরা ট্রাকটি আটক করে। পরে চালকের কেবিনে তল্লাশি করে অবৈধভাবে রাখো ১ লাখ ৫০ হাজার রিয়াল উদ্ধার করে। উদ্ধার হওয়া রিয়ালের ভারতীয় মূল্য ১ কোটি ৬৮ লাখ ৩৮ হাজার ৫০০ টাকা) বলে জানায় বিএসএফ।
আটক ট্রাক, হেলপার এবং উদ্ধার হওয়া রিয়ালসহ পেট্রাপোল থানায় সোপর্দ করে বিএসএফ। আটককৃতকে রবিবার বনগাঁ মহকুমা আদালতে পাঠিয়েছে পেট্রাপোল পুলিশ।
পেট্রাপোলের বন্দর ব্যবহারকারী একাধিক ব্যক্তি জানিয়েছে, বর্তমানে অধিকাংশ ভারতীয় ট্রাক চালকরা আমদানির বৈধ পণ্যের সাথে চোরাই পণ্য আনা নেওয়া করছে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে। পেট্রাপোল ও বেনাপোল বন্দরে এসব পণ্য পাচারের জন্য তৈরি হয়েছে শক্তিশালী সিন্ডিকেট। সীমান্তে অবৈধ চোরাচালানী ঘাট বন্ধ থাকায় এসব সিন্ডিকেট বৈদেশিক মুদ্রা, ফেনসিডিল, অস্ত্র, পাসপোর্ট, কসমেটিক, শাড়ি, ওষুধ, ইলিশ মাছ পাচার করছে পণ্যবাহী ট্রাকের চালকদের মাধ্যমে। এসব ট্রাক তল্লাশির কারণে প্রায় সময় নানা হয়রানির কথা বলে ভারতীয় ট্রাক মালিকসহ বন্দর ব্যবহারকারীরা বেনাপোল-পেট্রাপোল বন্দর দিয়ে আমদানি-রফতানি বন্ধ করে দেয়। এর আগে বিএসএফ ভারতীয় কয়েকটি ট্রাক তল্লাশি করে ওষুধ, বাংলাদেশি পাসপোর্ট, ইলিশ মাছ আটক করে। বেনাপোল কাস্টমস কর্তৃপক্ষও বৈধ পণ্যের সাথে অবৈধ পণ্যসহ কয়েকটি ট্রাক আটক করে নিজেদের হেফাজতে রেখেছে। এসব ট্রাকের চালক ও হেলপাররা মালামালসহ ট্রাক রেখে পালিয়ে যায়।
এ ব্যাপারে বেনাপোল বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) এর একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, আমরা ভারতীয় ট্রাক থেকে অনেক অবৈধ পণ্য আটক করেছি। আমদানি-রফতানির স্বার্থে অনেক সময় তল্লাশি করতে সময় নস্টের অজুহাত দেখিয়ে বন্দর ব্যবহারকারীরা আন্দোলন করে থাকে। তারপরও আমরা নিয়মিত তল্লাশি চালাচ্ছি। এ রকম ঘটনা ঘটলে আমরা প্রতিটি ট্রাক তল্লাশি করবো। #

 

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!