1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের বিরুদ্ধে পাসপোর্টযাত্রী ফেরত ও মারধর করার অভিযোগ - Dainikasharalo.com
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কয়রা উপজেলায় আশ্রয়ন প্রকল্পের রাস্তার বেহাল দশা বেনাপোল বন্ধন ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন বেনাপোল সীমান্ত থেকে পিস্তল,গুলি,ম্যাগজিন সহ আটক ০১ বেনাপোলে ০৩ মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার শার্শার জামতলা বাজারে মায়া ডিজিটাল ষ্টোডিওতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড বেনাপোলে পুলিশের অভিযানে ভারতীয় গাঁজা সহ আটক ৩ প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বেনাপোলে সাংবাদিকদের সাথে বিজিবির মত বিনিময় সভা যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর উদ্দেগে ব্লাড গ্রুপ ও মেডিকেল ক্যাম্পেইন আয়োজন ​আমাদের বেতন ভাতা পোশাক সব কিছু জনগনের ট্যাক্সের টাকায় — এসপি প্রলয় কুমার জোয়ার্দার




পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের বিরুদ্ধে পাসপোর্টযাত্রী ফেরত ও মারধর করার অভিযোগ

  • প্রকাশিত : রবিবার, ৮ আগস্ট, ২০২১
  • ১৬৪ বার পঠিত:

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
যথাযথ নিয়ম নিতি মেনে ভারত গমন মেডিকেল যাত্রীদের ফেরত পাঠাচ্ছে যশোর এর বেনাপোল ইমিগ্রেশন এর ওপারে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ। এমন কি তাদের কাউকে কাউকে মারধরও করছে তারা। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সুরক্ষা বিভাগের আদেশ নিয়েও এমন হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে এনিট্র রিফুইজড করে দেওয়া পাসপোর্ট যাত্রী ঢাকার এমদাদুল হক।

গত কয়েকদনি যাবত বাংলাদেশ থেকে ভারতে চিকিৎসা নিতে যাওয়া যাত্রীদের এমন আচারন করছে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ। পাসপোর্ট যাত্রী এমদাদুল হক বলেন আমি আমার মায়ের চিকিৎসার জন্য বেনাপোল ইমিগ্রেশন এর আনুষ্ঠানিকতা শেষে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশনে পাসপোর্ট দিলে নানা ধরনের প্রশ্ন জর্জরিত করে তোলে। এক পর্যায় আমাকে এন্ট্রি রিফুইজড সিল মেরে দেশে চলে যেতে বলে।

ঢাকার নারাগঞ্জ থেকে আসা পাসপোর্ট যাত্রী আরমান হোসেন বলেন,তার চোখের চিকিৎসার জন্য ভারতের চেন্নাই যাওয়ার উদ্দেশ্য গিয়েছিল। কিন্তু পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন এর পুলিশ তাকে ফিরিয়ে দেয়। আমাকে কেন যেতে দেওয়া হবে না জানতে চাইলে তারা আমাকে মারধর করে গলাধাক্কা দিয়ে বলে তোর কাছে কৈফিয়ত দিতে হবে নাকি?
এদিকে স্থানীয় একটি সুত্র বলেছে যারা ভারত হয়ে অন্যান্য রাষ্ট্রে চাকরির জন্য যায় তাদের এরকম করে থাকতে পারে। বর্তমানে ভারত যেতে গেলে করোনা সার্টিফিকেট, স্বারাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সনদ, ভারতীয় ডাক্তারের এপার্টমেন্ট নিয়ে যেতে হয়। এসব বিচার বিশ্লেষন করে ভারতীয় ইমিগ্রেশন পুলিশ তাদের মর্জি মত ছাড় দেয়। আর যাকে সন্দেহ হয় তাকে দেশে ফেরত পাঠায়।
বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি আহসান হাবিব বলেন, আমরা সকল কাগজপত্র যাচাই বাছাই করে পাঠাই। তারপর তারা কেন ফেরত দিচ্ছে সেটা তাদের রাষ্ট্রিয় ব্যাপার। তবে বিদেশ পার্টি বলে যারা এসব কাগজ পত্র তৈরী করে যাতায়াত করে তাদের সন্দেহ হলে আমরাও ফেরত পাঠাই। তবে গত কয়েকদিনে যারা প্রকৃত চিকিৎসা নিতে ভারত গমন করছিল তাদের কিছু যাত্রী ফেরত এসেছে ভারতীয় ইমিগ্রেশন থেকে।




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com