1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
জাতির জনকের কন্যা এসেছিলেন এক বুক ভালবাসা আর আপনজন হারানোর বেদনা নিয়ে এই পবিত্র ভুমিতে - মেয়র আশরাফুল আলম লিটন - Dainikasharalo.com
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১১:১৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কয়রা উপজেলায় আশ্রয়ন প্রকল্পের রাস্তার বেহাল দশা বেনাপোল বন্ধন ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন বেনাপোল সীমান্ত থেকে পিস্তল,গুলি,ম্যাগজিন সহ আটক ০১ বেনাপোলে ০৩ মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার শার্শার জামতলা বাজারে মায়া ডিজিটাল ষ্টোডিওতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড বেনাপোলে পুলিশের অভিযানে ভারতীয় গাঁজা সহ আটক ৩ প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বেনাপোলে সাংবাদিকদের সাথে বিজিবির মত বিনিময় সভা যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর উদ্দেগে ব্লাড গ্রুপ ও মেডিকেল ক্যাম্পেইন আয়োজন ​আমাদের বেতন ভাতা পোশাক সব কিছু জনগনের ট্যাক্সের টাকায় — এসপি প্রলয় কুমার জোয়ার্দার




জাতির জনকের কন্যা এসেছিলেন এক বুক ভালবাসা আর আপনজন হারানোর বেদনা নিয়ে এই পবিত্র ভুমিতে —– মেয়র আশরাফুল আলম লিটন

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৭ মে, ২০২২
  • ৪২ বার পঠিত:

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বেনাপোল পৌর সভার সাবেক মেয়র আশরাফুল আলম লিটন বলেছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা যখন পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করার জন্য দেশে আসলেন তখন রেখে এসেছিলেন দুই জন মাসুম বাচ্চা, রেখে এসেছিলেন বোন রেহানাকে। এক বুক ভালবাসা আর অসংখ্য আপনজন হারানোর বেদনা নিয়ে আসলেন এই পবিত্র ভুমিতে। তিনি এসেছিলেন বিধায় আজ সারা পৃথিবীতে আমরা সন্মান ও মর্যদা নিয়ে গর্বোবোধ করি। তিনি হাজার হাজার মেঠো পথ পাহাড়ী পথ হেটে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে পুনপ্রতিষ্ঠিত করলেন। কথাগুলো বললেন জননেত্রী শেখ হাসিনার ৪২ তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে প্রধান অতিথি হিসাবে বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগ কার্যারয়ে প্রধান অতিথি হিসাবে সাবেক মেয়র আশরাফুল আলম লিটন।

মঙ্গলবার বিকাল ৫ টার সময় শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে প্রধান অতিথি হিসাবে জননেত্রী শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শার্শা উপজেলা অওয়ামীলগের প্রচার সম্পাদক ইলিয়াছ আযম ।

প্রধান অথিথি সাবেক মেয়র আশরাফুল আলম লিটন বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা ১৯৮১ সালের এই দিনে দেশে এসে কি পেলেন। তিনি পেলেন দেশের প্রতিটি থানায় হাজার হাজার লক্ষ লক্ষ নেতা কর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা। বাংলাদেশ আওয়ামীগের নানা ধরনের বিভক্তি। নেতৃত্বের মাধ্যে বিভাজন। বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রন্দ্রে রন্দ্রে আঘাত এবং অনেক এলাকার মুক্তি যোদ্ধাদের হত্যা করা হয়েছে। সেই শৈ^রাশাশকের সময় এদেশের মানুষ এর পাশে দাঁড়িয়ে তিনি লড়াই সংগ্রাম করে ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসেন। তিনি যদি এদেশে না আসতেন তবে জাতিয় চার নেতার বিচার হতো না। তিনি না আসলে যুদ্ধ অপরাধিদের বিচার হতো না। জাতির জনকের হত্যার বিচার হতো না। তিনি এসে সেই কালো আইন বাতিল করে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন সেই সব অপরাধিদের।

জাতির জনকের কন্যা বাংলার হাজার হাজার মাইল পথ হেটে তার পিতার দেখানো স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করছে। আজ বাংলাদেশ এক অনন্য উচ্চতায় পৌছে গেছে। সারা দেশের রাষ্ট্র নায়করা শেখ হাসিনাকে নিয়ে গল্প করে। কি ভাবে একটি রাষ্ট্রকে উন্নত সমৃদ্ধ করে তুলেছে একজন নারী মাত্র কয়েক বছরে।

আজ জাতির জনকের কন্যা এসেছে বিাধায় আমার বিধবা মারা ভাতা পায়। আমার গর্ভবর্তী মায়েরা ভাতা পায়। আমার মুক্তিযোদ্ধা পিতারা ভাতা পায়। তিনি এসেছেন বিধায় আজ আমাদের স্বপ্নকে সম্পদে রুপান্তর করেছেন। আজ প্রতিবন্ধী ভাতাও তিনি শত ভাগ নিশ্চিত করেছেন। আজ জাতির জনক এদেশে এসেছিল বলে আমাদের ব্যবসায়িরা সারা বিশে^ সন্মন মর্যদায় তারা ব্যবসা করছে। তিনি এসেছিলেন বলে আজ আমরা নিজস্ব একটি স্যাটেলাইট পেয়েছি। আজ প্রতিটি জায়গা মানুষের আয় রোজগার বৃদ্ধি পেয়েছে। তিনি এসেছিলেন বলে আজ হারানো মর্যদা ফিরে পাচ্ছে।

এসময় তিনি জাতির জনকের কন্যার কাছে দাবি করেন সময় এসেছে প্রকৃত আওয়ামীলীগ পরিবারের কাছে তাদের দায়িত্ব ফিরে দিতে হবে। আজ অন্য দল থেকে এসে যারা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগকে বিভাজন করছে তাদের সরিয়ে ত্যাগি আওয়ামী নেতাদের কাছে দলের নেতৃত্ব ফিরিয়ে দিতে হবে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্ঠা মন্ডলীর সদস্য আহসান উল্লাহ মাষ্টার, শার্শা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদি হাসান, উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আজিবর রহমান, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক শেখ সারোয়ার, অর্থ সম্পাদক খোদাবক্স, উপজেলা মাহিলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিউটি খাতুন প্রমুখ।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com