1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
কোভিড -১৯ মোকাবেলায় বেনাপোলে কো-অর্ডিনেশন সভা অনুষ্টিত - Dainikasharalo.com
বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:৫৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কয়রা উপজেলায় আশ্রয়ন প্রকল্পের রাস্তার বেহাল দশা বেনাপোল বন্ধন ব্লাড ফাউন্ডেশন এর ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন বেনাপোল সীমান্ত থেকে পিস্তল,গুলি,ম্যাগজিন সহ আটক ০১ বেনাপোলে ০৩ মামলার সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার শার্শার জামতলা বাজারে মায়া ডিজিটাল ষ্টোডিওতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড বেনাপোলে পুলিশের অভিযানে ভারতীয় গাঁজা সহ আটক ৩ প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ বেনাপোলে সাংবাদিকদের সাথে বিজিবির মত বিনিময় সভা যশোরিয়ান ব্লাড ফাউন্ডেশন এর উদ্দেগে ব্লাড গ্রুপ ও মেডিকেল ক্যাম্পেইন আয়োজন ​আমাদের বেতন ভাতা পোশাক সব কিছু জনগনের ট্যাক্সের টাকায় — এসপি প্রলয় কুমার জোয়ার্দার




কোভিড -১৯ মোকাবেলায় বেনাপোলে কো-অর্ডিনেশন সভা অনুষ্টিত

  • প্রকাশিত : রবিবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০২১
  • ৬৮ বার পঠিত:

কোভিড -১৯ মোকাবেলায় বেনাপোলে কো-অর্ডিনেশন সভা অনুষ্টিত
বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবেলায় মনিটরিং এন্ড কো-অর্ডিশন সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার বেলা ১২ টার সময় স্থল বন্দর বেনাপোল এর আন্তর্জাতিক প্যাচেঞ্জার টার্মিনাল এর কনফারেন্স রুমে যশোর সিভিল সার্জন অফিস এর আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন স্থল বন্দর বেনাপোল এর পরিচালক মনিরুজ্জামান।

অনুষ্টানে সভাপতিত্ব করেন যশোর জেলা সিভিল সার্জন মোঃ আবু সাহিন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত কর্মকর্তারা বলেন,এক চেনা উদ্বেগ আমাদের মধ্যে নতুন করে দেখা দিয়েছে; আর তা হলো করোনা ভাইরাসের নতুন এই ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন। এই ভ্যারিয়েন্টটি কোভিড জীবানুর সবচেয়ে বেশি মিউটেট হওয়া সংস্করণ। এর মিউটেশনের তালিকা এত দীর্ঘ যে একজন বিজ্ঞানী একে ভয়াবহ বলে বর্ননা করেছেন। তার দেখা ভ্যারিয়েন্ট গুলোর মধ্যে ওমিক্রনই সবচেয়ে বেশী মারাতœক। এই সংক্রমণ যাতে ভারত হয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করতে না পারে তার জন্য বেনাপোল চেকপোষ্টে বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করার জন্য বিশেষ জোর দেন। ভারত থেকে পাসপোর্ট যাত্রী এবং ট্রাক প্রবেশের বাংলাদেশের প্রধান ফটকে এদের তাপমাত্রা নির্নয় করতে হবে। তাদের সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে সকল পাসপোর্ট যাত্রীদের ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস এর আনুষ্ঠানিকতা শেষ করতে হবে। ভারতীয় প্রতিদিন যে ৪ শত ট্রাক বাংলাদেশে পণ্য নিয়ে প্রবেশ করে তার জন্য বন্দর এলাকায় বিশেষ নজরদারীর ব্যবস্থা সহ তাদের তাপমাত্রা নিরুপণ এবং মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে। ভারতীয় টাক ড্রাইভাররা যাতে বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করার পর বিভিন্ন দোকানে দোকানে এবং বাজারে ঘোরা ফেরা না করে সে দিকেও নজরদারী করতে হবে। এছাড়া ভারতীয় ট্রাক ড্রাইভাররা এদেশে প্রবেশের পর মাল খালাসের জন্য কেউ কেউ ১৫ দিন যাবৎ ও অতিবাহিত করে; আর এই সময় তারা বার বার নিজ দেশে যেয়ে বাজার করে বেনাপোল বন্দরে রান্না করে খায়। এসব ড্রাইভারদের দ্রুত যাতে বন্দরে পণ্য খালাস করে নিজ দেশে পাঠানো যায় সে বিষয়ে আলোচনা হয়।

এছাড়া স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ের রোগ নিয়ন্ত্রন ও লাইন ডাউরেক্টর সিডিসি পরিচালক মোঃ নাজমুল হোসাইন স্বাররিত এক স্মরকপত্রে বলা হয়েছে যে সব যাত্রী ভারত থেকে দেশে ফিরবে তাদের যদি দুই ডোজ করোনা টিকা নেওয়া থাকে তবে তাদের ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা লাগবে না। তবে টিকার নেওয়ার পর অবশ্যই ১৪ দিন অতিবাহিত হতে হবে। ভারত থেকে আগত যে সব যাত্রী করোনার টিকা দুটি সম্পন্ন করেনি তাদের ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। ভারত থেকে ফেরত যে সব যাত্রীদের শরীরে করোনা উপসর্গ পাওয়া যাবে তাদের আইসোলেশনে থেকে আর টিপিসি আর টেষ্ট করতে হবে। আগত যাত্রীদের ৪৮ ঘন্টা পূর্বে আরটিপিসিআর রিপোর্ট এর নেগেটিভ সনদ নিয়ে দেশে প্রবেশ করতে হবে। ৮ বছরের কম বয়সী যে সব যাত্রী বাংলাদেশে প্রবেশ করবে তাদের পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের দুই ডোজ করোনা টিকা নেওয়া থাকলে তাদের হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে অব্যাহতি দেওয়া হবে। তবে ১২ বছরের কম বয়সী যাত্রীর আরটিপিসিআর রিপোর্ট বাধ্যতা মুলক নয়।

সিভিল সার্জন আবু শাহিন বলেন, ভারত থেকে যেসব যাত্রী দেশে ফিরবে অবশ্যই তাদের করোনা সনদ পরীা নিরীা করে দেখতে হবে। তাদের রিপোর্টে যেন কিউআর কোড অবশ্যই থাকে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, শার্শা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মীর আলীফ রেজা, বেনাপোল স্থল বন্দর এর উপ-পরিচালক মামুন কবির তরফদার, শার্শা বুরুজবাগান স্বাস্থ্য কেন্দ্রের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ ইউসুফ আলী, বেনাপোল কাস্টমস এর ডেপুটি কমিশনার আব্দুল কাইউম, যশোর নাভারণ সার্কেল এএসপি জুয়েল ইমরান, বেনাপোল ইমিগ্রেশন ওসি মোঃ রাজু, স্থল বন্দর বেনাপোল এর ৯২৫ শ্রমিক ইউনিয়ন এর সাধারন সম্পাদক ও শার্শা উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ওহিদুজ্জামান, বেনাপোল আইসিপি বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার মাহবুব হোসেন, বেনাপোল আনছার এর প্লাটুন কমান্ডার আবুল কালাম আজাদ।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com