1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
আবারও শার্শা বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ধুড় পাচারের অভিযোগ - Dainikasharalo.com
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৮:১৭ অপরাহ্ন




আবারও শার্শা বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে ধুড় পাচারের অভিযোগ

  • প্রকাশিত : শনিবার, ২৬ জুন, ২০২১
  • ৪১২ বার পঠিত:
ফাইল ছবি।।

বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
সীমান্ত দিয়ে মানব পাচার রোধে সরকারী বেসরকারী সংস্থা অত্যান্ত সতর্কতার সাথে কাজ করায় অনেকটাই নিয়ন্ত্রনে ছিল যশোর এর শার্শা ও বেনাপোল সীমান্ত। দীর্ঘদিন ধরে এ পথে উল্লেখযোগ্য কোন মানব পাচারের সাথে জড়িত কেউ অথবা পাচারের শিকার কাউকে আটক করতে দেখা যায়নি সীমান্তে নিয়োজিত আইনশৃংঙ্খলা রক্ষা কারী বাহিনীর সদস্যদের। সম্প্রতি করোনা মহামারিতে ভারত গমনের উপর বিধি নিষেধ আরোপ করায় এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের অনুমোদন ছাড়া যাওয়া নিশেধাজ্ঞা জারী করায় অনেকে পড়েছে বিপাকে। যাদের খুব বেশী প্রয়োজন তারা বাধ্য হয়ে বেছে নিচ্ছে জীবনের ঝুকি নিয়ে চোরাইপথে পাসপোর্ট ভিসা বাদে যাওয়া আসার জন্য । এমনি অভিযোগ উঠেছে শার্শার রুদ্রপুর সীমান্ত ও বেনাপোল এর সাদিপুর সীমান্ত দিয়ে এসব ধুড় (আঞ্চলিক ভাষায় ধুড়) পাচার।

সুত্রমতে, করেনা মহামারি সংকটে ভারত গমনাগমন বন্ধ থাকায় সম্প্রতি এ ধুড় পাচার শুরু হয়েছে। অনেকে আছে সে দেশে বিভিন্ন কাজ করে, আবার কেউ চিকিৎসা সেবা নিতে হবে, কেউ আত্নীয় স্বজন বাড়ি বেড়াতে যাবে নানা ধরনের অজুহাতে তারা ভারতে এসব সীমান্ত এলাকার দালালচক্রের সাথে যোগাযোগ করে অধিক টাকা দিয়ে ঝুকি নিয়ে পার হচ্ছে। আবার অনেকে সেদেশ পাসপোর্ট ভিসা বাদে চোরাই পথে যেয়ে বিভিন্ন কাজের সাথে যুক্ত হয়। তারা দেশেও একই কায়দায় প্রবেশ করছে। এতে করোনা ঝুকি বেড়ে যাচ্ছে বলে অনেকে মন্তব্য করেন।

শার্শার রুদ্রপুর সীমান্তের বউবাজার এলাকার কুতুব উদ্দিন বলেন, বিজিবির চোখ ফাঁকি দিয়ে দাঁতখালী গ্রামের শাহসালমিন নামে একজন পাচারকারী ধুড় পাচার করছে। সে ভারত থেকে সীমান্ত পেরিয়ে সুকৌশলে নিয়ে আসছে সে দেশে থাকা বাংলাদেশী নাগরীকদের। আবার বাংলাদেশ থেকে ও পাচার করছে ধুড়। তবে এর মধ্যে যুবতী মেয়েদের সংখ্যা বেশী। কারন এরা ভারতের মোম্বাই সহ বিভিন্ন শহরে বাসা বাড়ি, রাজমিস্ত্রি সহ নানা বিধ কাজ করে থাকে। সালমিন এর কাছে এ বিষয় জানাতে চাইলে সে বিষয়টি অস্বীকার করে বলে এখন সীমান্ত অনেক কড়াকড়ি এসব কাজ করি না। আমার নামে যারা বলেছে তারা মিথ্যা কথা বলেছে।

অপরদিকে বেনাপোল এর সাদিপুর সীমান্ত দিয়ে ভারতের জয়ন্তীপুর খুব কাছে। ৫০ গজ হাটলে উপারে যেতে পারে। সেই সুযোগ নিয়ে এখানকার একটি চক্র ধুড় পাচার করছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বেনাপোল বাজারের ব্যবসায়ি সাবেক একটি প্রি-ক্যাডেট স্কুলের প্রধান শিক্ষক নুরুল হক মাস্টার বলেন, ইদানিং ধুড় পাচার হচ্ছে। আর এরা সাদিপুর হয়ে ভারতে যাচ্ছে। তিনি বলেন গভীর রাত্রে তার বাড়ির পাশ দিয়ে রাস্তা দিয়ে ভ্যান যোগে যাতায়াত করে।

২১ বিজিবি রুদ্রপুর ক্যাম্পের সুবেদার লিয়াকত আলীর কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন এরকম যাতায়াত একেবারে বন্ধ। তারপর বিস্তর এলাকাজুড়ে সীমান্ত আমাদের জনবল কম যদি কেউ চুরি করে পাঠায় তাহলে সেটা ভিন্ন কথা। তবে বিজিবি খুব সতর্ক রয়েছে কোন রকম মানব বা চোরাচালানি পণ্য নিয়ে কেউ যাতে এপার ওপার আসা যাওয়া করতে না পারে। আমাদের মানব পাচার রোধে কঠোর নির্দেশনা আছে যদি কাউকে এর সাথে জড়িত ধরতে পারি তাকে সাথে সাথে পাচার মামলা দিয়ে থানায় হস্তান্তর করা হবে।




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!