1. [email protected] : admin2021 :
  2. [email protected] : AKASH :
  3. [email protected] : anisur : anisur rohman
  4. [email protected] : [email protected] :
আকুলকে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসানোর দাবি পরিবারের - Dainikasharalo.com
বুধবার, ০৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৩৫ অপরাহ্ন




আকুলকে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসানোর দাবি পরিবারের

  • প্রকাশিত : শনিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৩৫৫ বার পঠিত:

আশাদুজ্জামান আশাঃ
শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আকুল হোসাইনকে রাজনৈতিক জনপ্রিয়তায় ঈর্ষাম্বিত হয়ে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসানোর দাবি করেছে তার পরিবার। পরিবারের দাবি সে একজন জনপ্রিয় ছাত্রলীগ নেতা। বর্তমানে তার ছোট ভাই এনামুল হক মুকুল বেনাপোল পোর্ট থানার বাহাদুরপুর ইউনিয়ন পরিষদ এর চেয়ারম্যান প্রার্থী। আসন্ন এই নির্বাচনে মুকুলের জনপ্রিয়তা দেখে এবং উপজেলা সহ যশোর জেলায়ও আকুল হোসাইন এর জনপ্রিয়তা দেখে বিপক্ষ গ্রুপ তাকে অস্ত্র দিয়ে ফাঁসিয়েছে বলে তার পিতা নজরুল ইসলাম মন্তব্য করেন।

শুক্রবার বেলা ১২ টার সময় বেনাপোল পোর্ট থানার ঘিবা গ্রামে নিজ বাড়িতে আকুল হোসাইনের পিতা নজরুল ইসলাম বলেন, আমরা বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর রাজনীতি করি। আমার বড় ছেলে যশোর জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি ও শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক। এবং ছোট ছেলে বাহাদুরপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ও শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক। অন ইলেভেনের সময় আমার ছেলে আকুল হোসাইন যশোরে প্রথমে যে ২৪ জন ছাত্র মিছিল করেছিল তার মধ্যে একজন। আকুলের বিরুদ্ধে এ পর্যন্ত কোন অস্ত্র মামলা নেই। সে ব্যবসায়িক কাজে গত ৩০ আগষ্ট বাড়ি থেকে খুলনায় যায়। এরপর তার সাথে যোগাযোগ হয়নি। নানা দিকে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে সে খুলনায় আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের কাছে আটক হয়েছে। তার সাথে আরো ৪ জন রয়েছে। পরে ১ সেপ্টেম্বর বিভিন্ন গনমাধ্যম মারফত শোনা যায় তাকে সহ মোট ৫ জনকে অস্ত্র সহ আটক করা হয়েছে ঢাকা থেকে। তিনি দাবি করে বলেন, বর্তমানে শার্শায় আওয়ামীলীগের দুটি গ্রুপ রয়েছে। আকুল আমার নিজ রফতানি ব্যবসা দেখা শুনা করে। সে ব্যবসায়িক কাজে খুলনায় গিয়েছিল অন্যান্য ব্যবসায়িদের সাথে। সেই সুযোগ নিয়ে তাকে খুলনা থেকে একটি গ্রুপ ফাঁসিয়ে দিয়েছে । তাছাড়া সে গেল খুলনায় তাকে আটক দেখানো হয়েছে ঢাকায়। এছাড়া তারা যে কয়জন বেনাপোল থেকে খুলনায় গিয়েছিল তাদের সকলকে ঢাকার মিরপুর, দারুস সালাম, গাবতলি থেকে অস্ত্র সহ আটক দেখানো হযেছে। এটা ভিত্তিহীন বলে তিনি দাবি করেন। তিনি আরো বলেন, তার ছোট ছেলে এনামুল হক মুকুল বর্তমানে বাহাদুরপুর ইউয়িনয়নের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী। সে গত ৩১ আগষ্ট ওই ইউনিয়নের শাখারীপোতা এলাকায় শোডাউন করে । এতে হাজার হাজার নারী পুরুষ মুকুলকে চেয়ারম্যন হিসাবে দেখার জন্য মিছিল ও শ্লোগান দেয়। এরপর রাত্রে গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে আকুল খুলনা থেকে আটক হয়েছে। আমি এই আটককে ষড়যন্ত্র বলে দাবি করছি।

তিনি আরো বলেন তার সাথে ইলিয়াস হোসেন, আজিম হোসেন, ফারুক হোসেন এবং ফজলুর রহামন নামে যে আরো ৪ জন আটক হয়েছে এদের বিরুদ্ধে কোন মামলা নেই। এছাড়া এরা সিএন্ডএফ ব্যবসায়ি। এর মধ্যে ফজলুর রহমান একজন প্রাইভেড কার চালক। নজরুল ইসলাম অনতি বিলম্বে আকুলকে মুক্তি দেওয়ার জন্য সরকারের কাছে দাবি রাখেন।

এদিকে ১ সেপ্টেম্বর বিভিন্ন গনমাধ্যেমে আকুল হোসাইনেক আন্তর্জাতিক অস্ত্র ও মাদক ব্যবসার প্রধান দেখিয়ে সংবাদ প্রকাশ হয়।

 




এই পোস্টটি আপনার সামাজিক মিডিয়াতে শেয়ার করুন

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ




স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২২    বিঃদ্রঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিয়ম মেনে তথ্য মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিবন্ধনের জন্য অপেক্ষামান।

 
Theme Developed By ThemesBazar.Com
error: Content is protected !!