সংবাদ শিরোনাম :
বেনাপোল ট্রাক টার্মিনালের কার্যক্রম ব্যর্থ করে দিতে অশুভ চক্রের অপতৎপরতা শার্শায় নারী কেলেংকারী দিয়ে টাকা আদায়ের চেষ্টা শার্শা ও বেনাপোল সীমান্তে পৃথক অভিযানে ৮৮ কেজি গাজা সহ আটক ১ জোহরা ফ্রি মেডিকেল ক্লিনিক ডক্টরেট ডিগ্রি’ নিয়ে মমতাজ এর যত কথা সর্বাত্নক লকডাউন পালনে বেনাপোলে কঠোরতা।। সাধারন জনজীবন বিপর্যস্ত শার্শায় মাকে ধর্ষন করতে না পেরে ৮ বছরের মেয়েকে ধর্ষন চেষ্টা করার অভিযোগ আলিম নামে এক নরপশুর বিরুদ্ধে বেনাপোল চেকপোষ্টের প্রধান ফটক দিয়ে চোরাচালানি পণ্য প্রবেশ।। কাজে বাধা দেওয়ায় কাস্টমস শুল্ক গোয়েন্দাকে মারপিট বড়াইগ্রামে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড  বেনাপোল ট্রাক টার্মিনাল এর শুভ উদ্বোধন করেন যশোর জেলা প্রশাসক
বেনাপোল কাস্টমস ইমিগ্রেশন এর প্রধান ফটকে পাসপোর্ট যাত্রীদের সময় নষ্টের অভিযোগ বিজিবির বিরুদ্ধে

বেনাপোল কাস্টমস ইমিগ্রেশন এর প্রধান ফটকে পাসপোর্ট যাত্রীদের সময় নষ্টের অভিযোগ বিজিবির বিরুদ্ধে

বেনাপোল কাস্টমস ইমিগ্রেশন এর প্রধান ফটকে পাসপোর্ট যাত্রীদের সময় নষ্টের অভিযোগ বিজিবির বিরুদ্ধে
আশাদুজ্জামান আশা
বেনাপোল কাস্টমস ইমিগ্রেশন এর আন্তগমন ও বহির্গমন এর প্রধান ফটকে বিজিবি পাসপোর্ট যাত্রীদের লাইনে দাঁড়িয়ে যাত্রীর তথ্য লেখায় অযথা সময় ক্ষেপন ও অস্বস্তি ভোগ করছে বলে অভিযোগ করেছে পাসপোর্টযাত্রীরা। উভয় দেশের কাস্টমস ও ইমিগ্রেশন এর আনুষ্টানিকতা শেষে বাংলাদেশের প্রবেশ গেটে এই তথ্য এবং ভিসার ধরন লেখা হচ্ছে । দুই গেটে বসে আছে বিজিবি সদস্যরা । তারা খাতা কলম নিয়ে পাসপোর্ট যাত্রী আসা যাওয়ার সময় থেকে শেষ পর্যন্ত সময় লিপিবব্ধ করছে।

ভারত গমন পাসপোর্ট যাত্রী রনজিৎ পাল বলেন, আমাদের অযথা সময় নষ্ট হচ্ছে। আমরা কাস্টমস এবং ইমিগ্রেশন এর আনুষ্ঠানিকতা শেষে আবার দীর্ঘ লাইনে থেকে সময় ক্ষেপন করছি বিজিবির কাছে। তারা একজন একজন করে আমাদের পাসপোর্টের তথ্য লিখে সময় ন্ষ্ট করছে। পারভেজ আলম বলেন, আমাদের রৌদ্রে দাঁড়িয়ে রেখে শুধু সময় নস্ট করছে না, একই সাথে ল্যাগেজ নিয়ে ছোট শিশু এবং বৃদ্ধ ও রোগীদের নিয়ে পড়তে হচ্ছে বিজিবির অযথা এই কার্যকলাপে।

অপরদিকে ভারত থেকে আসা বাংলাদশেী পাসপোর্ট যাত্রী স্বপ্না হালদার বলেন, আমরা দুর দুরান্ত থেকে এসে বেনাপোল ইমিগ্রেশন কাস্টমস এর প্রবেশদ্বারে এসে বিজিবির কাছে লাইন দিয়ে দাঁড়াচ্ছি। তারা এক এক করে পাসপোর্টের নাম ঠিকানা লিপিবব্ধ করে আমাদের ছাড়ছে। যেখানে ডিজিটাল এই সময় সবকিছু ইমিগ্রেশন কম্পিউটারে পাওয়া যাচ্ছে সেখানে কেন বিজিবি এটা করছে তা আমাদের বোধগম্য নয়। আরব আলী নামে এক পাসপোর্ট যাত্রী বলেন এই সময় ব্যয় না করে যদি বিজিবি সীমান্তে চোরাচালানি কাজে নিয়োজিত থাকে তবে তাতে ও কিছুটা সফলতা আসবে। কারন এমনি জনবল কম তারপর এখানে ৪-৫ জন বিজিবি সদস্য সময় নষ্ট করছে পাসপোর্ট যাত্রীদের নাম ঠিকানা লিখে। ভারতীয় বিজিনেস পাসপোর্ট যাত্রী সুকুমার সিংহ বলেন আমরা ল্যাগেজ নিয়ে যখন বাংলাদেশে প্রবেশ করি তখন দীর্ঘ সময় গেটে দাঁড়িয়ে থাকতে হয়। এতে আমাদের ল্যাগেজ নিয়ে দাঁড়িয়ে থেকে কস্ট পোহাতে হয়। শুধু এটা নয় আবার কাস্টমস স্কানিং এর আগে অনেক সময় বিজিবি ও আমাদের ল্যাগেজ স্কানিং করে।
পাবনার পাসপোর্টযাত্রী ভারত থেকে ফিরে বেনাপোল চেকপোষ্টে এ প্রতিনিধিকে জানায় আমি ভারত থেকে নিয়ম অনুযায়ী এসেছি। প্রথম প্রবেশ গেটে একবার বিজিবি দাড় করিয়ে পাসপোর্ট এন্টি করছে এরপর ইমিগ্রেশন ও কাস্টমস এর আনুষ্ঠানিকতা শেষে আবার বের হয়ে সেই বিজিবির কাছে হচ্ছি হয়রানি। তারা বাহিরে দাড়িয়ে এটা সেটা জিজ্ঞেস করে ক্যাম্পে পাঠিয়ে দিচ্ছে। সেখানে আবার ল্যাগেজ খুলে সকল আনিত পণ্য খুলে দেখাতে হচ্ছে। এটা কোন সভ্য সমাজের কাজ। এর আগেতো কাস্টমসকে ল্যাগেজ দেখিয়ে এনেছি। দরিদ্র রাষ্ট্র তাহলে এত সংস্থার প্রয়োজন কি। যাদের সরকার ভালো মনে করে সেই একটি সরকারি সংস্থাকে দায়িত্ব দিলে ভালো হয়।

বেনাপোল চেকপোষ্ট কাস্টমস সুপার শারমীন আক্তার বলেন, বিজিবি যে কাজ করছে এটা তাদের নিজস্ব ব্যাপার। এ নিয়ে আমি কোন মন্তব্য করতে চাই না। ইমিগ্রেশন ওসি আহসান হাবিব বলেন যেখানে কাস্টমস ও ইমিগ্রেশন পাসপোর্ট ভ্রমন ট্যাক্স ল্যাগেজ যাচাই বাছাই করে ছাড়ছে সেখানে এসব পাসপোর্টযাত্রীদের পুনরায় এন্ট্রির প্রয়োজন আছে বলে আমি মনে করি না। কারন একজন বহির্গমন ও আন্তগমন পাসপোর্টযাত্রীর সকল তালিকা ইমিগ্রেশনে লিপিবদ্ধ থাকে। আর ল্যাগেজ কাস্টমস স্কানিং মেশিন দিয়ে দেখে তারপর যাত্রী ছাড়ে সেখানে অন্য একটি খাতায় নাম ঠিকানা লেখার প্রয়োজনীয়তা আছে বলে আমার মনে হয় না। তবে এটা তাদের নিজস্ব ব্যাপার।
এ ব্যাপারে ৪৯ বিজিবি বেনাপোল চেকপোষ্ট ক্যাম্পের সুবেদার আওয়াল হোসেন বলেন আমরা উপরের নির্দেশে এটা লিপিবদ্ধ করছি। এর জন্য সুবিধা কি আছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এটা সম্পুর্ন উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের নির্দেশ। সুবিধা অসুবিধা কি আছে পরে সাক্ষাতে আলাপ করব।

 

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত-২০২১ -এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Developed BY AMS IT & Solutions
error: Content is protected !!