সংবাদ শিরোনাম :
বেনাপোলে পিতৃবিহীন এক ছেলে সন্তান এর জন্ম

বেনাপোলে পিতৃবিহীন এক ছেলে সন্তান এর জন্ম

আশাদুজ্জামান আশা
বেনাপোলে পিতৃবিহীন এক পুত্র সন্তান এর জন্ম দিয়েছে কুলসুম ওরফে টরি নামে এক নারী। সোমবার সকাল ৯ টার সময় দিঘিরপাড় গ্রামে শিশুটির জন্ম দেয়। শিশুটির জন্দদাতা ওই গ্রামের রেজাউল ইসলাম বলে অভিযোগের তীর ছুড়েছে ভুক্তভোগি ও স্থানীয়রা। কুলসুম বেনাপোল পোর্ট থানার দিঘিরপাড় গ্রামের মৃত আকাইল ইসলামের স্ত্রী। সে ৪ সন্তানের জননী।

কুলসুম এর শশুর রহমত আলী বলেন, পাশের বাড়ির রেজাউল তার বাড়িতে রাত্রে মাঝে মধ্যে আসত। রেজাউলের সাথে তার ছেলের বউ টরির সাথে একবার গন্ডোগোল ও হয়। এরপর তারা ঘুমিয়ে পড়লে মাঝে মধ্যে আসত বলে অনেকে তার কাছে অভিযোগ করে। গত তিন বছর আগে তার পুত্র আকাইল আত্নহত্যা করে মারা যায়। এই সুযোগে রেজাউল হয়ত তার সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তোলে।

ভুক্তভোগি কুলসুম বলেন, রেজাউল তার সাথে দীর্ঘ দিন ধরে ভয়ভীত দেখিয়ে অবৈধ মেলা মেশা করে। এরপর এই সন্তানটির জন্ম হয়। আমি এর সঠিক বিচার চাই। সুফিয়া নামে স্থানীয় এক নারী জানায় রেজাউল খারাপ প্রকৃতির লোক। সে এলাকায় একজন ফেনসিডিল ব্যবসায়ী। সে একাধিক নারীর সাথে অবৈধ মেলা মেশা করে বলে ও তিনি দাবি করেন। গভীর রাত্রে সে এলাকায় বিভিন্ন বাড়ির সামনে অবস্থান করে ফেনসিডিল বিক্রি করে বলেও জানায়।

স্থানীয়রা জানায় রেজাউল ওই নারীর সাথে অবৈধ সম্পর্ক গড়ে তুলে দীর্ঘ দিন মেলামেশার পর এই পুত্র সন্তানটির জন্ম হয়েছে। তারা আরো জানায় সন্তান ভুমিষ্ট হবার পর কোদাল দিয়ে মাটি দেওয়ার জন্য জন্মদাত্রী টরি খাতুন প্রস্তুত নিলে তখন তার বড় মেয়ে দেখে ফেলে পাশের লোকজনকে জানায়।এরপর বিষয়টি জানাজানি হয়ে যায়।
রেজাউল এর কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে সে জানায় আমার নামে মিথ্যা অপবাদ দিচ্ছে। ডিএনএ টেস্ট করে যদি প্রমান করতে পারে আমি এই ছেলে দায়িত্ব বুঝে নিব।
এ ব্যাপারে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে।
বেনাপোল পোর্ট থানার ওসি মামুন খান বলেন এ ব্যাপারে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে ভুক্তভোগির মা। বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।

 

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত-২০২০-এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Developed BY AMS IT & Solutions
error: Content is protected !!