সংবাদ শিরোনাম :
আমি ক্যাটালগ দেখেছি বাংলাদেশের সকল পৌর সভার মধ্যে সুন্দর পৌরসভা বেনাপোল —— সারহান নাসের তম্ময় এমপি

আমি ক্যাটালগ দেখেছি বাংলাদেশের সকল পৌর সভার মধ্যে সুন্দর পৌরসভা বেনাপোল —— সারহান নাসের তম্ময় এমপি

আশাদুজ্জামান আশা

আমি ক্যাটালগ দেখেছি বাংলাদেশের সকল পৌর সভার মধ্যে সুন্দর পৌরসভা বেনাপোল
—— সারহান নাসের তম্ময়
বেনাপোল প্রতিনিধিঃ
আমি ক্যাটালগ দেখেছি বাংলাদেশের সকল পৌর সভার মধ্যে সুন্দর পৌরসভা বেনাপোল । বেনাপোল পৌর সভায় অনেক কাজ হয়েছে। আমাদের আওয়ামী সরকারের আমলে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য দেশের প্রত্যেকটি পৌরসভায় কাজ হয়েছে। বেনাপোল পৌর সভা তার মধ্যে অন্যতম। পৌরসভা কেন্দ্রিক যে পরিমান উন্নয়ন এর কাজ হয়েছে যদি পৌর মেয়ররা সে কাজ গুলি সঠিক ভাবে করত তাহলে প্রত্যেকটি পৌরসভা শহরে পরিনত হতো। দুঃখ জনক বিষয় হলো অনেক জায়গায় ভাল ভাবে সে কাজ গুলি হয়নি। আমরা সেগুলো পরিবর্তন করব। আমি বেনাপোল পৌর সভা ঘুরে দেখব। এই পৌরসভার কি ভাবে এত উন্নয়ন হলো তা আমাদের জানতে হবে এবং এটাকে মডেল হিসাবে আমরা সে ভাবে কাজে লাগিয়ে অন্য পৌর সভার উন্নয়ন করতে চাই। আরো যে সকল অসম্পুর্ন কাজ হয়েছে সেগুলো সমাপ্ত হলে আমি বেনাপোল পৌরসভায় ফিতা কাটতে আসব। কথাগুলো বললেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ভ্রাত্যাস্পুত্র শেখ হেলাল এমপির পুত্র বাগেরহাট – ২ আসানের এমপি শেখ সারহান নাসের তম্ময়।

শনিবার বেলা ৩ টার সময় মুজিব শত বর্ষ উপলক্ষে শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের আয়োজনে বেনাপোল সোনালী ব্যাংক চত্বরে আলোচনা সভায় প্রধান অথিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন শেখ সারহান নাসের তম্ময়। সভায় সভাপতিত্ব করেন শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি ও সাবেক উলাশি ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল আলম । বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন, আরো উপস্থিত ছিলেন বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক আহসান উল্লাহ মাস্টার , শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আবুল হোসেন বাবলু, ফজলুল হক বকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মালেক,দপ্তর সম্পাদক আজিবর রহমান, প্রচার সম্পাদক ইলিয়াছ আযম, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সাবেক শার্শা ইউনিয়ন এর চেয়ারম্যান কবির উদ্দিন তোতা, কোষাধ্যাক্ষ খোদা বক্স,শ্রম বিষয়ক সম্পাদক শেখ কোরবান আলী. শার্শা উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মেহেদী হাসান, বেনাপোল পৌর প্যানেল মেয়র সাহাবুদ্দিন মন্টু, কাউন্সিলার মিজানুর রহমান, বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের সদস্য মোজাফফার হোসেন, যশোর জেলা মুক্তি যোদ্ধা সন্তান কমান্ড এর সমাজ কল্যান বিষয়ক সম্পাদক ফারুক হোসেন উজ্জল, পুটখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল গফফার সরদার ,সাবেক ছাত্র নেতা রুহুল কুদ্দুস ভুইয়া, বেনাপোল পৌর আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরামের সভাপতি রহমত আলী, আওয়ামলীগ নেতা মিজানুর রহমান সহ উপজেলা ও পৌর আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ. আওয়ামী সাংস্কৃতিক ফোরাম, ছাত্রলীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গসংগঠনের নেতা কর্মীরা।

এর আগে বেলা ২.১৫ টার সময় ভারত থেকে ফেরার পথে জাতির জনকের এ দৌহিত্রকে উত্তরীয় পরিয়ে ও ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানায় যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন। এছাড়া বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ড এলাকায় শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দও এমপি তন্ময়কে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান। বেলা তিনটার সময় আলোচনা মঞ্চে এমপি তন্ময়কে ক্রেষ্টও দেন মেয়র লিটন।

প্রধান অতিথি শেখ সারহান নাসের তম্ময় বেনাপোল পৌর মেয়র লিটন এর প্রশংসা করে বলেন আমি সংসদ নির্বাচিত হওয়ার পর লিটন চাচা আমাকে একটি কাগজ দিয়েছিলেন। সে কাগজে ছিল বেনাপোলকে কিভাবে সুন্দর করা যায়। নেতা হতে হলে এরকম হতে হবে। শুধু দাঁড়ায় দাঁড়ায় বসে বসে ভাষন দিবে আর কাজের কাজ কিছু হবে না সে রকম নেতা হয়ে লাভ নেই। উনি আমাকে যে কাজ দেখিয়েছে আমি যদি বাগেরহাট যেয়ে সেরকম কাজ করতে না পারি তবে আমি মনে করব আমার অবস্থান তার চেয়ে খারাপ। জনগনের দাবির মুখে তিনি বলেন যে কাজ করবে তারা একদিন সঠিক জায়গায় যাবে। মেয়র লিটন আমার চাচা সে ভাবে কাজ করে যাচ্ছে আমি বিশ্বাস করি। যারা আওয়ামীগকে রক্ষা করবে যারা এলাকার উন্নয়নের জন্য কাজ করবে তাদের জন্য আমাদের সমর্থন থাকবে। এসময় তিনি দেশের শ্রেষ্ট সন্তানদের ডেকে সালাম বিনিময় করেন। তিনি জনগনের কাছে জানতে চান আপনারা কি চান তখন উপস্থিত জনতা মেয়র লিটনকে এমপি হিসাবে দেখতে চায় বলে দাবি জানান। এবং শার্শার প্রকৃত আওয়ামীলীগকে বাঁচাতেও তার কাছে দাবি রাখে।
অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি মেয়র লিটন বলেন, আমারা আজ গর্বিত। যে পরিবারটি বাংলাদেশ স্বাধীন এর জন্য নেতৃত্ব দিয়ে একটি লাল সবুজের পতাকা উপহার দিয়েছিল আজ সেই পরিবারের সন্তান আমাদের মাঝে উপস্থিত হয়েছে। আমরা সেই জাতির জনকের পরিবারের এ সদস্যকে শার্শা বেনাপোল এর পক্ষ থেকে রক্তীম শুভেচ্ছা জ্ঞাপন করছি। তিনি এসেছেন বেনাপোল বাসীর উন্নয়ন এর কথা শুনবেন দেখবেন ও ভবিষ্যাতে আরো কি ভাবে ভাল করা যায় সে সম্পর্কে জাতির জনকের কন্যা প্রধান মন্ত্রীর নিকট বেনাপোল বাসির দাবির কথা পৌছে দিবে।

অনুষ্ঠানটি পরিচালানা করেন বেনাপোল পৌর আওয়ামী যুবলীগের আহবায়ক সুকুমার দেবনাথ।

 

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত-২০২০-এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Developed BY AMS IT & Solutions
error: Content is protected !!