সংবাদ শিরোনাম :
শার্শায় পিতার বিক্রয়কৃত জমি ৩ পুত্রের জবর দখলের চেষ্টা

শার্শায় পিতার বিক্রয়কৃত জমি ৩ পুত্রের জবর দখলের চেষ্টা

ঝিকরগাছা (যশোর) প্রতিনিধিঃ

পিতার বিক্রয়কৃত জমি তিন পুত্রের জবর দখলের চেষ্টায়। ঘটনাটি যশোর জেলার শার্শা থানার উলাশী ইউনিয়নে। তারা ৩ ভাই ও তাদের ৩ স্ত্রী সর্বক্ষণ দেশিও অস্ত্র-সস্ত্র সহ বিগত ২০-১১-২০২০ ইং তারিখ থেকে হাজী আব্দুল জলিলের বাড়ীর সামনে অবস্থান করতেছে। তিন ভাইয়ের দাপটে অসহায় অবসরপ্রাপ্ত মার্চেন্ট নেভি কর্মকর্তা হাজী আব্দুল জলিল। সরেজমিন ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শার্শা উপজেলার উলাশী ইউনিয়নের ৮০ নং গিলাপোল মৌজায় এস, এ দাগ- ৩৯০ ও ৩৯১ আর, এস চূড়ান্ত দাগ ৬১৫ ও ৬১৬, খতিয়ান নং – ৫৩, জমির পরিমাণ ৩১.৫০ শতক। সাবেক এস, এ রেকর্ডীয় মালিক কেসমত আলী পিতাঃ মৃত- কফিল উদ্দিন, সাং- গিলাপোল দেখা যায় ৬-১১-১৯৮৫ ইং তারিখে ২টি কোবলা দলিলের মাধ্যমে যাহার নং যথাক্রমে ৩৯৫৯ ও ৩৯৬২ মোট জমির পরিমাণ = ৩১.৫০ শতক জমি কেসমত আলী, হাজী আব্দুল জলিল, পিতাঃ গফুর আলী গাজী, সাং- গিলাপোল এর নামে হস্তান্তর করেন এবং হাজী আব্দুল জলিল একই মৌজায় এস, এ দাগ – ৩৮৮, আর, এস দাগ ৬২২, ১৬০নং খতিয়ান ৩১ শতক জমি ১৪-১১-১৯৮০ ইং সালে ১১১৪০ নং কোবলা মূলে মুছা মন্ডল, পিতাঃ মৃত-পাচু মন্ডল, সাং- গিলাপোল এর নিকট থেকে হাজী আব্দুল জলিল, পিতাঃ গফুর আলী গাজী গংরা ক্রয় করেন এবং পরবর্তীতে গিলাপোল মৌজায় এস, এ ৩৮৯, আর, এস- ৬২১ দাগে ১৮ শতক জমি ০৬-১১-১৯৮৫ ইং সালে ৮১৫৯ কোবলা দলিল মূলে কেসমত আলী গংদের নিকট হইতে হাজী আব্দুল জলিল ক্রয় করেন। বর্তমানে কেসমত আলীর মৃত্যুন্তে তিন পুত্র, আশাদুল ইসলাম (৩৭), মোঃ শহিদুল ইসলাম (৩৪), মোঃ তরিকুল ইসলাম (৩২) সহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা জোর পূর্বক পিতার বিক্রয়কৃত জমি সহ অন্যের নিকট থেকে হাজী আব্দুল জলিলের ক্রয়কৃত সম্পত্তির উপর জোর জবর দখল নেওয়ার চেষ্টা করছে। তারা ৩ ভাই ও তাদের ৩ স্ত্রী সর্বক্ষণ দেশিও অস্ত্র-সস্ত্র সহ বিগত ২০-১১-২০২০ ইং তারিখ থেকে হাজী আব্দুল জলিলের বাড়ীর সামনে অবস্থান করতেছে। এ ব্যাপারে হাজী আব্দুল জলিলের জেষ্ঠ পুত্র ডাঃ আবু জাহিদ রোজেল (৩৭) কথা বলতে গেলে তারা ৩ ভাই ধারালো অস্ত্র ও লাঠি সুটা নিয়ে ধাওয়া করে, এবং অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে। বাড়ি থেকে কেউ বের হইলে হত্যা করার হুমকি দেয়। এ ব্যপারে ডাঃ আবু জাহিদ রোজেল স্থানীয় থানায় শহিদুল গংদের নামে সাধারন ডায়েরি করেন। স্থানীয় কিছু কুচক্র মহল এতে ইন্ধন দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। সুধী মহলের দাবী যেখানে হাজী আব্দুল জলিলের ক্রয়কৃত সমস্ত সম্পত্তি বর্তমানে হাল জরিপে তাহার নামে চূড়ান্ত রেকর্ড প্রকাশ হয়েছে, সেখানে পিতার বিক্রয়কৃত সম্পত্তি সহ অন্যের নিকট থেকে ক্রয় করা হাজী আব্দুল জলিলের সম্পত্তি জবর দখল করতে আসে কি করে? এ সংক্রান্ত বিষয়ে কেসমত আলী পুত্র শহিদুলের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি আমাদের প্রতিবেদকের সাথে কাগজপত্র নিয়ে দেখা করার কথা বললেও দেখা করেননি। নিকটস্ত ভূমি অফিস থেকে জানা যায় শহিদুল গংদের নিকট জমি দাবি করার মতো উপযুক্ত কোন কাগজপত্র নেই। তারা সম্পূর্ণ গায়ের জোরে জমিটি জবর দখল করতে চায়। এ বিষয়ে শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল আলম খানের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, বিজ্ঞ আদালত উক্ত সম্পত্তির উপর ১৪৪ ধারা জারি করেছেন। আমরা আইন শৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য উভয় পক্ষের প্রতি নোটিশ জারী করেছি এবং বিজ্ঞ আদলতে একটি প্রতিবেদনও পাঠিয়েছি। বিরোধীও সম্পত্তি নিয়ে বর্তমান উভয় পক্ষের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা রয়েছে। এলাকাবাসী দ্রুত প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

Top of Form

Bottom of Form

Aa

 

 

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত-২০২০-এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Developed BY AMS IT & Solutions
error: Content is protected !!