সংবাদ শিরোনাম :
দক্ষিন বঙ্গে আওয়ামীলীগের কান্ডারী শেখ হেলাল উদ্দিন —– মেয়র লিটন

দক্ষিন বঙ্গে আওয়ামীলীগের কান্ডারী শেখ হেলাল উদ্দিন —– মেয়র লিটন

আলতাফ চৌধুরীঃ
৭৫ এ বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের পর যখন পাকিস্তানী ভাবধারায় একটি চক্র দেশ পরিচালনার অপচেষ্টা করছিল সেই ক্রান্তি লগ্নে ১৯৮১ সালে জাতির জনকের কন্যা শেখ হাসিনা স্বদেশ ফিরে ডুবন্ত আওয়ামীলীগের হাল ধরেন। এবং এই বাংলার পথে প্রান্তরে শত শত মাইল পায়ে হেটে দলটিকে পুনরোজ্জিবিত করে তোলেন। আর এই দুরুহ কাজে সেই সময়কার খুলনা বিভাগের সকল জেলা উপজেলা মাঠ ঘাট চষে বেড়িয়েছেন শেখ পরিবারেরই আরেক কৃতি সন্তান শেখ আবু নাছের এর সুযোগ্য পুত্র শেখ হেলাল উদ্দিন। আজ তিনি স্ব-পরিবারে মরন ব্যাধি করোনায় আক্রান্ত আমরা দেশ জাতির স্বার্থে তার রোগ মুক্তি প্রার্থনা করছি পরম করুনাময় আল্লাহর দরবারে। যশোর জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক বেনাপোল পৌর মেয়র আশরাফুল আলম লিটন আজ সোমবার বেনাপোলে আয়োজিত এক সমাবেশে এ কথাগুলো বলেন।

শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগ বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে শেখ হেলাল উদ্দিন ও তার স্ত্রী রূপা চৌধুরীর রোগ মুক্তি কামনায় এই সমাবেশ ও দোয়া মাহফিল এর আয়োজন করে। সংগঠনের সহ – সভাপতি ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল আলম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন বেনাপোল পৌর আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক আহসান উল্লাহ মাষ্টার, শার্শা উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আজিবর রহমান, সমবায় ও কৃষি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুর রহমান, শার্শা ট্রাক লরি শ্রমিক ইউনিয়ন এর সভাপতি ইব্রাহীম, শার্শা উপজেলা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক আরিফুর রহমান, ছাত্র নেতা দুলোক শরীফ। উপস্থিত ছিলেন বেনাপোল পৌর প্যানেল মেয়র সাহাবুদ্দিন মন্টু, পৌর আওয়ামীলীগ নেতা মতিয়ার রহমান মধু, মোজাফফার হোসেন, পৌর যুবলীগের  আহবায়ক সুকুমার দেবনাথ প্রমুখ বেনাপোল পৌর কাউন্সিলার মিজানুর রহমান, ।

সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে আশরাফুল আলম লিটন আরো বলেন, নিজের জীবন বিপন্ন হবে জেনেও জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমান এর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন এর জন্য কঠিন লড়াই সংগ্রামের জন্য মাঠে নামেন। সাথে ছিলেন আরো অনেকের মত দক্ষিন বঙ্গে জাতির জনকের ভ্র্যাতুস্পুত্র শেখ হেলাল উদ্দিন। তিনি এই জনপদের বিশেষ করে খুলনা বাগেরহাট বরিশালের গ্রামীন জনপদে নিরন্ন মানুষের মধ্যে সাহয্যর হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন। মানবতা সমুন্নত রেখে একের পর এক সমাজ কল্যানে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। চিকিৎসা ক্ষেত্রেও তার অবদান অনস্বী কার্য। আমরা প্রত্যাশা করছি তিনি স্বপরিবারে সুস্থ হয়ে আবার মানুষের কাছে ফিরে আসবেন।

 

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত-২০২০-এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Developed BY AMS IT & Solutions
error: Content is protected !!