সংবাদ শিরোনাম :
ডিমলায় মাদক ব্যবসায়ী ১০০ গ্রাম গাজা সহ আটক কেশবপুরে একই সড়কে পৃথক দুর্ঘটনায় নিহত-২ রুহিয়ার ঢোলার হাঁটে  সাংসদ ও তার স্ত্রীর রোগ মুক্তি কামনায় মন্দিরে প্রার্থনা শার্শার পুটখালী সীমান্তর বিশ্বাস বাড়ি-ভুলোট রাস্তাটি চোরাচালানিদের নিরাপদ রুট প্রতিহিংসা পরায়ণ রাজনীতি কোন অর্জন নয় ||১৫ আগষ্ট বাঙালি জাতির ইতিহাসে এক বেদনাবিধুর দিন—— মেয়র লিটন ইতিহাসে বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কেবল একজন প্রাক্তন রাষ্ট্রনায়কের সহধর্মিনীই নন, বাঙ্গালির মুক্তি সংগ্রামে অন্যতম এক নেপথ্য অনুপ্রেরণাদাত্রী —— মেয়র লিটন বেনাপোল রঘুনাথপুর ভারতীয় ফেন্সিডিল ও মটরসাইকেল সহ আটক ১ মধ্যনগর থানায় মামলা করতে কোন দালাল বা টাকা লাগেনা ওসি আব্দুল্লাহ আল মামুন লোহাগড়ায় আওয়ামীলীগ সভাপতির সংবাদ সম্মেলন শার্শার বাগআঁচড়া পরকীয়া প্রেমের জেরে দৈহিক সম্পর্ক করার সময় কতিথ আওয়ামীলীগ নেতা গ্রামবাসির কাছে আটকঃ পুলিশের উদ্ধার
খুলনার কয়রায় ইফতারের সাথে বিশ মিশিয়ে গৃহ বধুকে হত্যা।অতঃপর অভিযোগে স্বামী দেবর আটক।

খুলনার কয়রায় ইফতারের সাথে বিশ মিশিয়ে গৃহ বধুকে হত্যা।অতঃপর অভিযোগে স্বামী দেবর আটক।

আঃজলিলঃবিশেষ প্রতিনিধিঃ-
খুলনা জেলার পাইকগাছা কয়রা উপজেলার সীমান্তে ইফতারির পানীর সাথে বিষ মিশিয়ে রিমা বেগম(২৩) নামে দু’সন্তানের জননী গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। থানা পুলিশ গৃহবধুর স্বামী কিবরিয়া সানা ও দেবর কারিজুল সানাকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠিয়েছে।
এদিকে ময়না তদন্ত শেষে রিমার লাশ স্বামীর বাড়ীতে পৌছালে সেখানে দাফনে বাঁধা দেয়ায় নিহতের পিত্রালয় পাইকগাছার গজালিয়ায় দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বর্বরতার এখানেই শেষ নয়। নিহত রিমার সদ্য জন্ম নেওয়া ২ মাসের শিশু কন্যা জাহিদা ও ৫ বছরের শাহিদাকে তাদের দাদা-দাদীরা সেখানেই আটকে দিয়েছে বলেও অভিযোগ উল্লেখ রয়েছে।
মামলার বিবরণ ও পারিবারিক একাধিক সূত্র জানায়, গত ৩ মে সন্ধ্যায় কয়রা উপজেলা থেকে ১৯ ও পাইকগাছা থেকে ১৮ কিলোমিটার দুরে কয়রা সীমান্তের হরিনগর গ্রাম। ঠিক ইফতারির আগ মুহূর্তে সময় সেখানে তখন চলছে দু’মাস ও ৫ বছরের দু’ কন্যা সন্তানের জননী রোজাদার রিমা বেগমকে হত্যার ষড়যন্ত্র। অসহায় গৃহবধূর স্বামী, শ্বশুর ও দেবর পরষ্পর যোগসাজসে ইফতারীর পানীয়র সাথে বিষ মিশিয়ে তাকে হত্যার গভীর নীল নকশা।
একপর্যায়ে ইফতারীর সময় ঘণিয়ে আসলে তারা তাকে ঐ বিষ মিশ্রিত পানীয় দেয় ইফতারীতে। রিমা ইফতারের সাথে বিষ মিশ্রিত পানি খান এতে কিছুক্ষণের মধ্যেই রিমা মৃত্যু যন্ত্রনায় ছটফট শুরু করলেও পরিবারের লোকজন তাকে ডাক্তারের কাছে নিতে নানা টালবাহানা শুরু করে। এক পর্যায়ে প্রতিবেশীদের চাপে স্থানীয় পল্লী চিকিৎসক জেহের আলীকে ডেকে আনলে রিমা মৃত্যুর আগে তাকে বিষ খাওয়ানো হয়েছে বলে ডাক্তারকে জানায়। ডাক্তার তাকে দ্রুত হাপাতালে নিয়ে ওয়াশ করানোর ব্যবস্থা করান। তারপরও অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথিমধ্যে ডুমুরিয়ায় পৌছালে তার মৃত্যু হয়।
এরপর লাশের ময়না তদন্ত শেষে স্বামীর বাড়ীতে নিলে ঘটে আরো বিপত্তি। স্বামীর বাড়ির লোকজন সেখানে তাকে কবর দিতে না দেওয়ায় সেখান থেকে লাশ ফিরিয়ে নেয়া হয় তার পিত্রালয় পাইকগাছার গজালিয়ায়। সেখানেই দাফন সম্পন্ন হয়েছে।
নিহত রিমার পিত্রালয় থেকে অভিযোগ করা হয়েছে, রিমার রেখে যাওয়া সদ্য প্রসূত ২মাসের মেয়ে জাহিদা ও ৫ বছরের শাহিদাকে তাদের দাদা-দাদিরা তাদের জিম্মায় রেখে দিয়েছে।
ঘটনায় নিহতের মা মমতা বেগম বাদী রিমার স্বামী কিবরিয়া সানা, দেবর কারিজুলসহ অজ্ঞাতনামা আরো ২/৩ জনকে আসামী করে কয়রা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছে। তাৎক্ষনিক কয়রা থানা পুলিশ রিমার স্বামী ও দেবরকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠিয়েছে।
এ ব্যাপারে স্থানীয়রা জানান, ঘটনার ২/৩ দিন আগে থেকে রিমাকে তার শ্বশুর বাড়ীর লোকেরা শারীরিক ও মানসিকভাবে নির্যাতন করে আসছে।

সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত-২০২০-এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Developed BY AMS IT & Solutions